বাংলাদেশে বসবাসরত পাকিস্তানীদের ফেরত পাঠানো হবে : নৌপরিবহনমন্ত্রী

শাজাহান খাননৌপরিবহনমন্ত্রী মো. শাজাহান খান বলেছেন, ‘১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে মানবতাবিরোধী অপরাধের সঙ্গে জড়িত ১৯৫ পাকিস্তানি সেনাকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে এনে বিচারের মুখোমুখি করা হবে। সেই সঙ্গে পাকিস্তানের কাছে বাংলাদেশের পাওনা ৩২ হাজার কোটি টাকা আদায়ে পদক্ষেপ নেওয়া হবে। এ ছাড়া বাংলাদেশে বসবাসরত পাকিস্তানিদেরও ফেরত পাঠানো হবে।’

রোববার রাতে কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের একরামপুর এলাকায় জেলা মোটরযান শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যালয়ে সংগঠনের নবনির্বাচিত কমিটির শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

নৌপরিবহনমন্ত্রী আরো বলেন, ‘স্বাধীনতার ৪৪ বছর পরও পাকিস্তানিরা বাংলাদেশে বসে ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। ঢাকাস্থ পাকিস্তান দূতাবাস এখন কাশিমবাজারের কুঠিতে পরিণত হয়েছে। পাকিস্তানি এজেন্টরা বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ভারতীয় জাল মুদ্রা ছড়িয়ে ও জঙ্গিদের মদদদানের মাধ্যমে দেশকে অস্থিতিশীল করার পাঁয়তারা চালাচ্ছে।’

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, ‘সরকার শ্রমিকদের জন্য টঙ্গী ও নারায়ণগঞ্জে ৩০০ শয্যাবিশিষ্ট দুটি হাসপাতালসহ বিভিন্ন কল্যাণমূলক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।’

প্রবীণ শ্রমিক নেতা কামরুজ্জামান বদরুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে জেলা পরিষদ প্রশাসক মো. জিল্লুর রহমান, বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রোকেয়া প্রাচী এবং বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মো. ওসমান আলী বক্তব্য রাখেন।

সভার শুরুতেই কিশোরগঞ্জ জেলা মোটরযান শ্রমিক ইউনিয়নের নবনির্বাচিত কমিটির কর্মকর্তাদের শপথবাক্য পাঠ করান শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু।