মুক্তিযুদ্ধের মতো ভোটযুদ্ধে তরুণ প্রজন্মকে অংশগ্রহণ করতে হবে : অলি

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক দল ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পাটি-এলডিপির সভাপতি কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বলেছেন, কেউ যদি মনে করেন, আমরা মাঠ ছেড়ে পালিয়ে যাব, তাহলে ভুল করবেন। মুক্তিযোদ্ধারা কখনও মাঠ ছেড়ে পালিয়ে যায় না। যুবসমাজকে ঐক্যবদ্ধ করে এই সরকারকে মোকাবিলা করব। মুক্তিযুদ্ধের মতো ভোটযুদ্ধে তরুণ প্রজন্মকে অংশগ্রহণ করতে হবে।

আজ ১৫ নভেম্বন বৃহস্পতিবার বিকালের দিকে রাজধানীর গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে জোটের এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

অলি আহমদ বলেন, বর্তমান পরিস্থিতি চলতে থাকলে নিরপেক্ষ নির্বাচন অসম্ভব। কারণ, এই নির্বাচনে নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই।সেক্ষেত্রে নির্বাচনে অংশ নেবে কিনা সে বিষয়ে ২০ দল যথাসময়ে সিদ্ধান্ত ঘোষণা করতে বাধ্য হবে। সুষ্ঠু নির্বাচনের পথে যত অন্তরায় আছে, সেটা সরাতে হবে। সকলের জন্য সমান সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে। অন্যথায় কখনো নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না।

তিনি বলেন সরকার লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডের কথা বলে, কিন্তু মাঠে ময়দানে দেখি মন্ত্রী-এমপিরা এখনো পুলিশ পাহারায় চলে। তাহলে বিএনপি, ২০ দলীয় জোট ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতাদেরও পুলিশের নিরাপত্তা দিতে হবে। না হলে এজন্য নির্বাচন কমিশনকে এক সময় জনগণের কাছে জবাব দিতে হবে।

শান্তিপূর্ণ নেতা-কর্মীর ওপর হামলা করা হয়েছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, দুদিন আগে লাখ লাখ নেতা-কর্মী শান্তিপূর্ণভাবে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছে। কিন্তু হঠাৎ করে এমন কী হলো যে বুধবার হামলা চালাতে হলো? আ’লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের সময় সমর্থকদের সংঘর্ষে দুজন মারা গেছে। তাতে পুলিশ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

তিনি আরো বলেন, বিশ্বের কোন গণতান্ত্রিক দেশে রাজনৈতিক নেতার বক্তব্য মিডিয়ায় প্রচার করা যাবে না এমন দৃষ্টান্ত নেই। অথচ বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বক্তৃতা-বিবৃতি প্রকাশের উপর বিধি নিষেধ আরোপের ফলে নির্বাচনী প্রচারণায় তিনি সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করতে পারছেন না। আসন্ন নির্বাচনে  দলের ভারপ্রাপ্ত প্রধানের কথা শোনার অধিকার থেকে দেশবাসীকে বঞ্চিত করা ও নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড ধারণাকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে।