পেঁয়াজের ঝাঁজ চোখের জন্য কি ভাল?

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | লাইফস্টাইল ডেস্ক


পেঁয়াজ কাটতে গেলেই চোখ থেকে পানি বের হয়? এমনকি পেঁয়াজ কাটা হচ্ছে এমন সময়ে সামনে বসে থাকলেও অনেকের চোখ জ্বলে ও পানি আসে।

অনেকেই একে বেশি গুরুত্ব দেন না কিন্তু চিকিৎসকরা বলছেন, এই জ্বালা যেমন অস্বস্তির, তেমন এই জ্বালাপোড়া চোখের জন্যও স্বাস্থ্যকর নয়। পেঁয়াজে থাকা নানা সালফার জাতীয় উপাদানের কারণেই এমনটা হয়। তবে চোখ জ্বালা করার অন্যতম কারণ পেঁয়াজের অ্যামিনো এসিড সালফক্সাইড।

পেঁয়াজ কাটার সময় এর কোষের ভিতর থেকে অ্যালিনেজ নামক উৎসেচক বের হয়। এটি অ্যামিনো এসিড সালফক্সাইডকে সালফোনিক অ্যাসিডে পরিণত করে।

যা চোখের সংস্পর্শে এলেই এক নতুন যৌগ তৈরি করে এবং চোখে পানি আসতে বাধ্য করে।

কিন্তু এসব রাসায়নিক বিক্রিয়া ঘটা সত্ত্বেও কিছু ঘরোয়া উপায় জানা থাকলে পেঁয়াজ কাটতে বসলেও একেবারেই চোখ জ্বলবে না। আর চোখ দিয়ে পানিও পড়বে না।

এই উপায়ে পেঁয়াজের সালফার বাদ গেলেও তা খাদ্যগুণ বা পুষ্টিতে প্রভাব ফেলে না। তাই নিশ্চিন্তেই এই উপায়ে কাটা যাবে পেঁয়াজ।

লবণ পানিতে ভিজিয়ে রাখুন পেঁয়াজ। ১৫ মিনিট রাখার পর পরিষ্কার পানিতে ধুয়ে তারপর কাটলে কোনো সুবিধা হবে না। লবণ পানি পেঁয়াজের সালফারকে শোষণ করে।

পেঁয়াজ কাটার আগে তার খোসা ছাড়িয়ে টুকরো করে পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। কিছুক্ষণ ভেজার পর এই পানি ফেলে দিন। আবার টাটকা পানিতে কিছুক্ষণ ভিজিয়ে তার পর কাটুন পেঁয়াজ। এতে সালফার যৌগ প্রায় বেরিয়ে যায় পেঁয়াজ থেকে।

ছুরি বা বঁটিতে ভিনেগার মাখিয়ে তা দিয়ে পেঁয়াজ কাটুন। ভিনেগার সালফার যৌগকে নিষ্ক্রিয় করে দেয় অনেকটাই। ফলে চোখের জ্বালা কমবে।

খুব ধারালো ছুরি বা বঁটিতে পেঁয়াজ কাটুন। এতে পেঁয়াজের কোষগুলো কম ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ফলে সালফার কম বের হয়।

খোসা ছাড়িয়ে ফ্রিজে রেখে দিন পেঁয়াজ। ৩০ মিনিট পর বার করে ভাল করে ধুয়ে কাটুন তা।

পেঁয়াজ কাটার সময় তার গোড়ার অংশ কেটে ফেলে দিন।