বিএনপি নেতা রফিকুল ইসলাম মিয়া গ্রেফতার

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়াকে গোয়েন্দা পুলিশ পরিচয়ে তুলে নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তার ব্যক্তিগত সহকারী মোকসেদুর রহমান আবির।

আজ ২০ মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে রাজধানীর নিউ ইস্কাটনের বাসা থেকে তাকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলে জানান তিনি।

এর আগে মঙ্গলবার দুপুরের দিকে সম্পদের হিসাব না দেয়ায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়াকে ৩ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে ঢাকার একটি আদালত।

পাশাপাশি আদালত তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ৩ মাসের বিনাশ্রম করাদণ্ড দিয়েছে। একইসঙ্গে আদালত রফিকুলের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন।

দুদকের আইনজীবী মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীর বলেন, রায় ঘোষণার সময় আসামি রফিক আদালতে হাজির ছিলেন না। বিচারক তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণী থেকে জানা গেছে, ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়ার বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয়-বহির্ভূত সম্পদ অর্জন সংক্রান্ত অভিযোগ পায় তৎকালীন দুর্নীতি দমন ব্যুরো। ২০০১ সালের ৭ এপ্রিল তৎকালীন দুর্নীতি দমন ব্যুরো সম্পদের হিসাব বিবরণী জমা দিতে রফিকুল ইসলাম মিয়াকে নোটিস দেয়। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তিনি হিসাব না দেয়ায় ব্যুরো কর্মকর্তা সৈয়দ লিয়াকত হোসেন ২০০৪ সালের ১৫ জানুয়ারি রফিকের বিরুদ্ধে ঢাকার উত্তরা থানায় মামলা করেন।

মামলার তদন্ত শেষে ওই বছরের ৩০ নভেম্বর ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে দুদক। আদালত ওই অভিযোগ আমলে নিয়ে গত বছরের ১৪ নভেম্বর রফিকুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরু করেন। রাষ্ট্রপক্ষে ৬  জন সাক্ষীর জবানবন্দি শুনে আদালত মঙ্গলবার এ মামলার রায় ঘোষণা করল।