রাসুল (সা.)-এর পোশাক পরিধানকে মডেল হিসেবে গ্রহণ করেছে পশ্চিমারা

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | ডেস্ক রিপোর্ট



টাখনুর নিচে কাপড় পড়া জায়েজ নয়। নবী করিম (সা.) নিষেধ করেছেন টাখনুর নিচে কাপড় যেন কেউ না পড়ে। বিশ্ব নবায়নের এ যুগে কাপড় পরিধানে চলে এসেছে প্রতিযোগিতা।

রাসুল (সা.)-এর কাপড় পরিধানের সুন্নত পশ্চিমা দেশে অমুসলমানরা মডেল হিসেবে নিয়েছেন। বিশেষ করে ইতালিতে টাখনুর উপর কাপড় পড়ে ইতালিয়ান তরুন-তরুনীরা ফ্যাশন করছেন।

দীর্ঘ দশ বছর ধরে টাখনুর উপর প্যান্ট পড়া তাদের জন্য আধুনিক যুগের মডেল। কিন্তু মুসলমানদের জন্য এটি পালন করা সুন্নত। যা অনেকের পক্ষে পালন করা সম্ভব হচ্ছেনা। আর পশ্চিমারা তা সাদরে গ্রহন করে মডেল হিসেবে নিয়েছেন।

অথচ রাসুল (সা.) ১৫শ বছর আগে টাখনুর নিচে কাপড় পরিধানে নিষেধ করেছেন।

আধুনিক যুগে এটি ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে ইতালিসহ বিভিন্ন দেশে। ইতালিতে প্রায় দশ বছর ধরে টাখনুর উপর প্যান্ট পড়ছেন ইতালিয়ান উঠতি বয়সের ছেলে মেয়েরা। বয়সের দিক হিসাব করলে তের থেকে সাতাশ বয়সের যুবকদের মাঝে এ মডেল বিদ্যমান তুলনামূলকভাবে বেশি।

এ বিষয়ে কয়েক জনের সঙ্গে আলাপ হলে তারা বলেন,প্যান্ট টাখনুর উপর পড়া কিভাবে এলো তা জানিনা তবে আমাদের কাছে এটা একটা সুন্দর মডেল। তাই আমরা টাখনুর উপর প্যান্ট পরিধান করতে ভীষন স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। মানুয়েল নামে একজন ইতালিয়ান যুবক বলেন,দশ বছর ধরে টাখনুর উপর প্যান্ট পড়ছি। আমার কাছে খুব ভাল লাগে। এটি আমার কাছে একটি মডেল।

উল্লেখ্য, আমেরিকার একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠান থেকে জানা যায়,টাখনুর নিচে কাপড় পরিধানে টেস্টোস্টেরন নামক যৌন হরমোন শুকিয়ে যায়।


ইনসাফ শো | পর্ব : ৫৬ | বিষয় : দাওয়াতে তাবলীগের চলমান সমস্যা

ইনসাফ সম্পাদক সাইয়েদ মাহফুজ খন্দকারের (Mahfuj Khandakar) সঞ্চালনায় চলছে ইনসাফ শো।বিষয় : দাওয়াতে তাবলীগের চলমান সমস্যা ও আজকের সংবাদ সম্মেলন।অতিথি : মাওলানা মাওলানা বাহাউদ্দীন জাকারিয়া, মাওলানা জহির ইবনে মুসলিম, মাওলানা ফজলুল করীম কাসেমী ও মাওলানা লোকমান মাজহারী।পর্ব : ৫৬

Posted by insaf24.com on Sunday, December 2, 2018