জানুয়ারি ১৯, ২০১৭

খুনীদের কাছ থেকে মানবিকতা নিয়ে কোনো জ্ঞান নিতে চাই না : গিলানি

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

সাইয়্যেদ আলী শাহ গিলানি
সাইয়্যেদ আলী শাহ গিলানি

কাশ্মিরে হুররিয়াত কনফারেন্সের চেয়ারম্যান সাইয়্যেদ আলী শাহ গিলানি বলেছেন, ‘যাদের হাত আমাদের নিরীহ মানুষের রক্তে ভেজা তাদের কাছ থেকে গণতন্ত্র এবং মানবিকতা নিয়ে কোনো জ্ঞান নিতে চাই না।’

তিনি আরো বলেছেন, ‘রাজ্যে সফররত সর্বদলীয় প্রতিনিধি দল জম্মু-কাশ্মিরের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে দেখুক ভারতীয় গণতন্ত্রের উপহার যা গত কয়েক দশকে তাদের হত্যাকারী বাহিনী আমাদের দিয়েছে।’

সোমবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের মন্তব্যের পাল্টা জবাবে গিলানির ওই মন্তব্য প্রকাশ্যে এসেছে। গিলানির মুখপাত্র বলেন, আলোচনার জন্য সরকারিভাবে তাদের কোনো আমন্ত্রণই জানানো হয়নি।

রোববার রাজনাথ সিংয়ের নেতৃত্বে যাওয়া সর্বদলীয় প্রতিনিধিদের মধ্য থেকে সিপিআই(এম) নেতা সীতারাম ইয়েচুরি, সিপিআইয়ের ডি রাজা, জেডিইউয়ের শারদ যাদবরা ব্যক্তিগত উদ্যোগে হুররিয়াত প্রধান সাইয়্যেদ আলী শাহ গিলানি এবং সেখানকার আন্দোলনরত অন্য নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে যান। যদিও তারা ওই প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি।

বন্দি হয়ে থাকা জেকেএলএফ নেতা ইয়াসিন মালিক কাশ্মির উপত্যকার পরিস্থিতি নিয়ে কোনো কথা বলতে রাজি না হলেও তিনি যখন দিল্লি যাবেন তখনই ওই কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে কথা বলবেন বলে জানান।

যদিও গত দুই মাস ধরে গৃহবন্দি অবস্থায় থাকা হুররিয়াত প্রধান সাইয়্যেদ আলী শাহ গিলানির বাড়িতে সীতারাম ইয়েচুরিসহ অন্যরা তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করার জন্য গেলেও গিলানির বাড়ির সদরদরজা খোলা হয়নি। সেখানে মিনিট দশেক দাঁড়িয়ে থাকার পর গিলানির পক্ষ থেকে জানিয়ে দেয়া হয় যে, তিনি প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলবেন না।

ওই ঘটনাকেই কেন্দ্র করে সোমবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং হুররিয়াত নেতাদের সমালোচনা করে বলেন, ‘প্রতিনিধিদলের মধ্য থেকে কয়েকজন নেতা ব্যক্তিগত উদ্যোগে হুররিয়াত নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গিয়েছিলেন। কিন্তু তাদের সঙ্গে যে ব্যবহার করা হয়েছে তাতে কাশ্মিরিয়াত, মানবতা বা গণতন্ত্র কোনোটাই নেই।’

রাজনাথ সিংয়ের ওই মন্তব্যের পাল্টা জবাবে হুররিয়ায়তের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘যাদের হাত আমাদের নিরীহ মানুষের রক্তে ভেজা তাদের থেকে গণতন্ত্র, মানবিকতা নিয়ে কোনো জ্ঞান নিতে চাই না।’

সূত্র : পার্স টুডে