জানুয়ারি ১৯, ২০১৭

মরনবাঁধ ফারাক্কা ভেঙ্গে দিতে হবে : ড. কাদের

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

unnamedখেলাফত মজলিসের মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের বলেছেন, বাংলাদেশের বন্যার জন্যে ভারতের ফারাক্কা বাঁধ অনেকাংশেই দায়ী। ফারাক্কা বাঁধের কারণে বাংলাদেশের অসংখ্য নদ-নদী মরে গেছে, নব্যতা হারিয়েছে। এ ছাড়া ভারত অতিবর্ষন বা বন্যার সময় ফরাক্কার গেট খুলে দেয়ায় বাংলাদেশ হঠাৎ বন্যার কবলে পতিত হয়। শুষ্ক মৌসুমে পানির অভাব আর অতিবির্ষনের সময় বন্যার পানিতে ডুবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে বাংলাদেশের মানুষ। এ ফারাক্কা বাঁধ শুধু বাংলাদেশেরই সমস্যা নয়। ফারাক্কার প্রভাবে ভারতের বিহার রাজ্য প্রতিবছরই বন্যার কবলে পতিত হয়। বিহারের মূখ্যমন্ত্রীও ফারাক্কা বাঁধ সড়িয়ে ফেলার দাবী জানিয়েছেন। সুতরাং অবিলম্বে মরনবাঁধ ফারাক্কা ভেঙ্গে দিতে হবে। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ফারাক্কা ইস্যু আন্তর্জাতিক ফোরামে উত্থাপন করতে হবে।

তিনি বলেন, সরকার বন্যাদুর্গত মানুষের কষ্ট লাঘবে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। আমাদেরকে দুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। সামর্থের আলোকে সবাইকে সহযোগিতার হাত বাড়াতে হবে। মানিকগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় বন্যাদুর্গত মানুষের মধ্যে আজ ত্রাণ বিতরণকালে তিনি এ কথা বলেন।

আজ (৬ সেপ্টেম্বর) মঙ্গলবার মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার চকমিরপুর, দৌলতপুর উপজেলার হিজুলিয়ায় ও শিবালয় উপজেলার কয়েকটি স্থানে খেলাফত মজলিসের পক্ষ থেকে দিনভর ত্রাণ বিতরণকালে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নায়েবে আমীর মাওলানা সৈয়দ মজিবুর রহমান, কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ সম্পাদক মাওলানা নোমান মাযহারী, মানিকগঞ্জ জেলা সেক্রেটারী মাওলানা শেখ মুহাম্মদ সালাহ উদ্দিন, ঢাকা মহানগরীর সাংগঠনিক সম্পাদক তাওহিদুল ইসলাম তুহিন,মানিকগঞ্জ জেলা সহসভাপতি মাওলানা নূরুল ইসলাম, মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা শামসুল ইসলাম, মাওলানা তানজিল ইসলাম, মাওলানা আবদুল বাতেন, মাওলানা ফজলুল করিম প্রমুখ।