হবিগঞ্জে নিখোঁজ ৪ স্কুলছাত্রকে হত্যার পর মাটিতে পুঁতে রেখেছে দুর্বৃত্তরা

zakaria-tazelহবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার ভাদেশ্বর ইউনিয়নে মাটি খুঁড়ে নিখোঁজ চার শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিখোঁজ শিশুদের বয়স সাত থেকে দশ বছর।

বুধবার সকালে উপজেলার সন্ধ্যাদিঘির পশ্চিম পাশ থেকে ওই চার শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহতরা হলো মোহাম্মদ ওয়াহিদ মিয়ার ছেলে ও স্থানীয় সুন্দ্রটিকি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র জাকারিয়া আহমেদ শুভ (৮), তার চাচাত ভাই চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র তাজেল মিয়া (১০), আবদাল মিয়ার ছেলে প্রথম শ্রেণির ছাত্র মনির মিয়া (৭) ও আব্দুল কাদিরের ছেলে সুন্দ্রাটিকি মাদরাসার ছাত্র ইসমাঈল হোসেন (১০)।

নিহত শিশুদের বাড়ি বাহুবলের ভাদেশ্বর ইউনিয়নের সুন্দ্রাটিকি গ্রামে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, স্থানীয়রা বালির স্তুপের নিচে থেকে শিশুদের হাত-পা বের হয়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মাটি খুঁড়ে তাদের উদ্ধার করছে। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত উদ্ধার কাজ শেষ হয়নি।

শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টায় বাড়ির পাশের মাঠে খেলাধূলা করতে যায় ওই শিশুরা। সন্ধ্যার পরও তারা নিজ নিজ বাড়িতে ফিরে না আসায় অভিভাবকরা খোঁজাখুজি করতে থাকে। কোথাও তাদের সন্ধান না পেয়ে শুক্রবার রাতেই উপজেলার সর্বত্র মাইকিং করে নিখোঁজের সংবাদটি প্রচার করা হয়।

এরপর শনিবার দুপুর পর্যন্ত ওই চার শিশুর সন্ধান না পেয়ে জাকারিয়া আহমেদ শুভর বাবা ওয়াহিদ মিয়া বাদী হয়ে বাহুবল মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

বাহুবল মডেল থানার ওসি মোশারফ হোসেন জানান, হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার চার শিশুকে পাওয়া যাচ্ছিল না। শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টা থেকে ওই চার শিশু নিখোঁজ হয়। বাড়ির পাশের মাঠে খেলতে গিয়ে আর ফিরে আসেনি তারা। খোঁজাখুঁজি করে কোথাও সন্ধান না পেয়ে শুক্রবার রাতে উপজেলায় মাইকিং করা হয়।

তিনি আরো বলেন, শনিবার এ ব্যাপারে ওই শিশুদের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়। আজ স্থানীয়দের তথ্যের ভিত্তিতে মাটি খুঁড়ে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।