পাকিস্তানে ব্যাপকহারে বিনিয়োগের আহ্বান জানালেন এরদোগান | insaf24.com

পাকিস্তানে ব্যাপকহারে বিনিয়োগের আহ্বান জানালেন এরদোগান

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | মুসলিম বিশ্ব ডেস্ক


সংবাদ সম্মেলনে ইমরান খান ও এরদোগান। ছবি: সংগৃহীত।

পাকিস্তানে ব্যাপকহারে বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তায়্যিব এরদোগান।

শুক্রবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে বৈঠকের পর এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে তুর্কি ব্যবসায়ীদের প্রতি এ আহ্বান জানান এরদোগান।

এরদোগান বলেন, তুরস্ক নিজেদের ব্যবসায়ীদের পাকিস্তানে বিনিয়োগ করতে উৎসাহিত করবে।

এ সময় ইমরান খান বলেন, তুরস্কের সঙ্গে পাকিস্তানের সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হবে।

প্রসঙ্গত, সামরিক শক্তিতে মুসলিম বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী দেশ তুরস্ক ও পারমাণবিক শক্তিধর মুসলিম দেশ পাকিস্তান।

সংবাদ সম্মেলনে আফগানিস্তানের সংকট নিয়েও কথা বলেন মুসলিম বিশ্বের এ দুই নেতা।

এরদোগান ঘোষণা করেন- শীঘ্রই আফগানিস্তান ও পাকিস্তানকে নিয়ে ত্রিদেশীয় একটি সম্মেলন আয়োজন করবে তুরস্ক। কাশ্মীর ইস্যুতে শান্তিপূর্ণ সমাধানের জন্য ভারতের সঙ্গেও আলোচনার বিষয়েও কথা হয় ওই বৈঠকে।

ইমরান খান বলেন, পাকিস্তানের সঙ্গে তুরস্কের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের উচ্চতা এখন যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি। তিনি তুর্কি ব্যবসায়ীদের পাকিস্তানে নানা সুবিধা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।

তিনি আরও বলেন, আমাদের দেশের মানুষকে আমি দারিদ্রমুক্ত করতে চাই।


ইনসাফ সাংবাদিকতা কোর্স

ইনসাফ সাংবাদিকতা কোর্সদেশের প্রথম ইসলামী ঘরানার অনলাইন পত্রিকা ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকমের আয়োজনে শুরু হতে যাচ্ছে স্বল্পমেয়াদী সাংবাদিকতা কোর্স।অংশগ্রহণ করতে যোগাযোগ করুন এই নাম্বারে-০১৭১৯৫৬৪৬১৬এছাড়াও সরাসরি আসতে পারেন ইনসাফ কার্যালয়ে।ঠিকানা – ৬০/এ পুরানা পল্টন ঢাকা ১০০০।

Posted by insaf24.com on Monday, October 29, 2018


বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে বিবৃতি দিল জাপান
জানুয়ারি ০৪, ২০১৯
ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


বাংলাদেশে গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত সব দলের অংশগ্রহণমূলক জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে স্বাগত জানিয়েছে জাপান।

শুক্রবার দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানায়।

জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রেস সচিব তাকেশি ওসুগার দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দেশের সব কটি প্রধান বিরোধী দলের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত নির্বাচনকে জাপান স্বাগত জানায় এবং এই অগ্রগতিকে জাপান সংশ্লিষ্ট সবার চালানো প্রচেষ্টার ফলাফল হিসেবে গণ্য করে। পাশাপাশি হতাহতের বেশ কিছু ঘটনাসহ নির্বাচনী প্রক্রিয়ার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট উদ্বেগজনক ঘটনাগুলোকে জাপান দুঃখজনক হিসেবে দেখছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, বাংলাদেশের স্বাধীনতার সময়কাল থেকে ঐতিহ্যবাহী বন্ধুরাষ্ট্র জাপান। তারা আশা করছে, গণতান্ত্রিক অগ্রগতির পথ ধরে এগিয়ে যাওয়া অব্যাহত রাখবে বাংলাদেশ। উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি অর্জনে বাংলাদেশের চালানো প্রচেষ্টায় অব্যাহত সমর্থন ও দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক আরও এগিয়ে নেওয়ার ইচ্ছা জাপানের আছে।