পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই ব্যক্তি নিহত | insaf24.com

পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই ব্যক্তি নিহত

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


অলঙ্করণ : জারাদা

পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে কক্সবাজারের টেকনাফে দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ৫টি দেশীয় অস্ত্র এবং ২২ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ বলছে নিহতরা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভূক্ত মাদক ব্যবসায়ী।

বুধবার দিনগত রাত দেড়টার দিকে জেলার টেকনাফের সাবরাং খুরেরমুখ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, আব্দুর রশিদ প্রকাশ ডাইল্যা (৪৭) এবং আবুল কালাম (৩৫)। নিহত আব্দুর রশিদ টেকনাফের সাবরাং কচুবুনিয়া এলাকার মৃত এনাম শরীফ এবং আবুল কালাম কাটা বনিয়ার আব্দুর রহমানের ছেলে।

পুলিশের দাবি, এ ঘটনায় পুলিশের টেকনাফ থানার এসআই বোরহান উদ্দিন, এএসআই ফরহাদ ও কনস্টেবল হৃদয় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, নিহতরা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত ইয়াবা ব্যবসায়ী। এদের মধ্যে আবুল কালামের বিরুদ্ধে টেকনাফ থানায় মাদক, মানব পাচারসহ ১০টি এবং আব্দুর রশিদের বিরুদ্ধে ৬টি মামলা রয়েছে।


ইনসাফ সাংবাদিকতা কোর্স

ইনসাফ সাংবাদিকতা কোর্সদেশের প্রথম ইসলামী ঘরানার অনলাইন পত্রিকা ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকমের আয়োজনে শুরু হতে যাচ্ছে স্বল্পমেয়াদী সাংবাদিকতা কোর্স।অংশগ্রহণ করতে যোগাযোগ করুন এই নাম্বারে-০১৭১৯৫৬৪৬১৬এছাড়াও সরাসরি আসতে পারেন ইনসাফ কার্যালয়ে।ঠিকানা – ৬০/এ পুরানা পল্টন ঢাকা ১০০০।

Posted by insaf24.com on Monday, October 29, 2018


বগুড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুসহ নিহত ৩
Date: জানুয়ারি ১০, ২০১৯
ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


বগুড়ায় সিএনজি ও ভটভটির মুখোমুখি সংঘর্ষে এক শিশুসহ ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে বগুড়া সদরের মানিকচক বাজার এলাকায় বগুড়া-ঢাকা ২য় বাইপাস সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

ফুলবাড়ী ফাঁড়ির এস আই শহিদুল ইসলাম জানান, ওই মহাসড়কের মানিকচক বাজারে ভটভটি ও সিএনজি অটোরকিশার মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই অজ্ঞাতনামা (২৭) বছরের একজন মারা যায়। পরে আহত ৩ জন সিএনজি অটোরকিশার যাত্রী ইব্রাহীম (৫), তার বাবা সামিউল ও সাবেদ আলী (৪৮) কে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ছিলিমপুর ফাঁড়ির ইনচার্জ (মেডিকেল) আব্দুল আজিজ মন্ডল জানান, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশু ইব্রাহীম ও ছাবেদ আলীর মৃত্যু হয়। ইব্রাহীম বগুড়া সদরের শাখারিয়ার সামিউলের ছেলে এবং ছাবেদ আলী সদরের কর্ণপুরের জয়নালের ছেলে।