সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার না করলে অভিযান চালানো হবে : তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | আন্তর্জাতিক ডেস্ক


তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসওগ্লু বলেছেন, সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করা না হলে দেশটিতে অবস্থানরত কুর্দি সন্ত্রাসী সংগঠন পপুলার প্রটেকশন ইউনিটস (ওয়াইপিজি)-র গেরিলাদের বিরুদ্ধে আংকারা সামরিক অভিযান চালাবে।

তুর্কি ভাষার টেলিভিশন চ্যানেল এনটিভি-কে বুধবার দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, তুর্কিরা কুর্দিদের ওপর গণহত্যা চালাবে এমন হাস্যকর অজুহাত দেখিয়ে যদি মার্কিন সেনা প্রত্যাহার বন্ধ করে দেয়া হয় তাহলে আমরা অভিযানের এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করব।

তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী পরিষ্কার করে বলেন, আংকারা সরকার তার নিজের পরিকল্পনা সামনে নিয়ে এগুবে। তিনি বলেন, আমরা ময়দানে এবং আলোচনার টেবিলে দুই জায়গাতেই প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। সময়মতো আমরা সিদ্ধান্ত নেব এবং আমরা কারো কাছ থেকে অনুমতি নেব না।

তিনি আরো বলেন, আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করার আগেই তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান সিরিয়ায় তৎপর কুর্দি গেরিলাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানোর সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছেন। আমেরিকা সেনা প্রত্যাহার করুক আর নাই করুক- তুরস্ক কুর্দি গেরিলাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাবে।

গত মাসে ট্রাম্প সিরিয়া থেকে সেনা প্রত্যাহারের কথা বলেছেন কিন্তু জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টনসহ মার্কিন প্রশাসনের অনেকেই এ সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করছেন। এতে সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

সূত্র : পার্সটুডে


ঈমান ও নৈতিকতা ছাড়া কোনো সভ্যতা টিকে থাকতে পারেনা: এরদোগান
জানুয়ারি ১০, ২০১৯
ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম। আরিফ মুসতাহসান


ঈমান ও নৈতিকতা ছাড়া কোনো সভ্যতা টিকতে পারেনা বলে মন্তব্য করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান। তিনি বলেন, ঈমান ও নৈতিকতার অভাব থাকলে সেই সভ্যতা ধীরে ধীরে বিলুপ্ত হতে থাকে। আধুনিক বিশ্বে ঈমান ও নৈতিকতামুক্ত সংস্কৃতির প্রচার করা হয়, আমরা সে ভুলটি করবো না।

বুধবার (০৯ জানুয়ারী) তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় এক রাষ্ট্রীয় সেমিনারে বক্তব্য দানকালে এরদোগান এসব কথা বলেন।

এরদোগান বলেন, গত ৫ বছরে তুরস্কে অনেক ঐতিহাসিক পরিবর্তন এসেছে। যা রাষ্ট্র পরিচালনার ক্ষেত্রে প্রভাব ফেলছে। শত বছরের উসমানীয় ঐতিহ্য বর্তমান সরকার ব্যবস্থায় যোগ করা দরকার।

এরদোগান আরো বলেন, ঈমান ও নৈতিকতা ঠিক থাকলে কেউ কখনো রাষ্ট্রদ্রোহিতা বা সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের সাথে জড়িত হতে পারে না। অভ্যুত্থানের পরে তুরস্কে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। তুরস্কে বর্তমানে সন্ত্রাসীদের কোনো স্থান নেই। তাদের গোড়া কেটে দেয়া হয়েছে।

সূত্র, আনাদোলু এজেন্সি