মোদীকে মমতার হুঁশিয়ারি : আগুন নিয়ে খেলবেন না

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | আন্তর্জাতিক ডেস্ক


ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপি নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ‘আমি আপনাদের স্পষ্ট বলছি, আগুন নিয়ে খেলবেন না।’ তিনি আজ (বৃহস্পতিবার) পশ্চিমবঙ্গের কৃষ্ণনগরে এক সমাবেশে ভাষণ দেয়ার সময় ওই মন্তব্য করেন।

মমতা প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আপনার কেন্দ্রীয় সরকারের যা কাজ, সেটা করুন। ব্যাঙ্ক লুটেছেন, নোট বাতিলের নামে মানুষের টাকা লুটেছেন, ব্যাঙ্ক গুলোর বারোটা বাজিয়ে দিয়েছেন, রিজার্ভ ব্যাঙ্কের বারোটা বাজিয়ে দিয়েছেন, (কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা) সিবিআইয়ের বারোটা বাজিয়ে দিয়েছেন, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান নষ্ট করে দিয়েছেন! আজ তো ইতিহাসও পরিবর্তন করে দিচ্ছেন। সবার নাম পরিবর্তন করে দিচ্ছেন। সবকিছু বদলে দিচ্ছেন। নিজেদেরকে কী ভাবেন? যা ইচ্ছে তাই করে যাবেন?’

তিনি বলেন, ‘মমতা ব্যানার্জি কিছু বললেই সিবিআই পাঠিয়ে দেবেন? পাঠান, কতো সিবিআই আছে, কত ইডি (এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট) আছে দেখতে চাই। আমাদের মুখ এভাবে বন্ধ করে দেয়া যাবে না। আজকে তপসিলি-আদিবাসীদের উপরে যে অত্যাচার আপনারা করেছেন, তপসিলি-আদিবাসীরা তা কড়ায়গণ্ডায় আদায় করে নেবে। সংখ্যালঘুদের উপরে যে অত্যাচার করেছেন, কড়ায়গণ্ডায় আদায় করে নেবে।’

রাজ্যের অধিকারে হস্তক্ষেপের অভিযোগ প্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারের তুলোধোনা করে প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে মমতা বলেন, ‘আপনি কী রাজ্যগুলোতে প্যারালাল গভর্নমেন্ট চালাচ্ছেন? কখনো এ জিনিস ভারতে হয়নি। ভারতের মোদি সরকার প্যারালাল স্টেট গভর্নমেন্ট চালাচ্ছেন! প্যারালাল প্রতিষ্ঠান চালাচ্ছে, প্যারালাল প্রশাসন চালাচ্ছে। এরকম জঘন্য সরকার, এত নগণ্য সরকার কখনো আমরা দেখিনি।’

মমতা বলেন, ‘তুমি আমার রাজ্য থেকে কেন্দ্রীয় সরকার চল্লিশ থেকে পঞ্চাশ হাজার কোটি টাকা তুলে নিয়ে যাচ্ছ। আয়কর সংগ্রহ করে নিয়ে যাচ্ছ, ওটা রাজ্য সরকার পায় না। সেল ট্যাক্স সংগ্রহ করে নিয়ে যাচ্ছ, ওটা রাজ্য পায় না। কাস্টমসের টাকা সংগ্রহ করে নিয়ে যাচ্ছ, ওটা রাজ্য পায় না। তুমি হাজার হাজার কোটি টাকা আমার বাংলার মানুষের কাছ থেকে কেটে নিয়ে যাচ্ছ। তেমন অন্য রাজ্য থেকেও কাটছ। সেই টাকা থেকে একটা অংশের টাকা তোমরা আমাদেরকে দাও। এটা দয়া করে দাও না! আর তোমার পার্টিও দেয় না! তুমি মাছের তেলে মাছ ভাজো। আমার টাকাটা নিয়ে যাও তার কিছুটা আমাদের দাও।’

মমতা বলেন, ‘স্বাস্থ্য দেবে কে? রাজ্য। শিক্ষা দেবে কে? রাজ্য। পঞ্চায়েতে কাজ করবে কে? রাজ্য। কৃষিকাজ করবে কে? রাজ্য। আর ‘দালালি’ করবে কে? তুমি, তুমি নরেন্দ্র মোদি। তুমি ‘দালালি’ করবে। কেন?’

বিজেপি নেতৃত্বাধীন কেদ্রীয় সরকারকে ‘চেঙ্গিস খাঁ ও হিটলারের থেকেও ভয়ঙ্কর’ বলে মন্তব্য করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

উৎস, পার্সটুডে


ইনসাফ সাংবাদিকতা কোর্স

ইনসাফ সাংবাদিকতা কোর্সদেশের প্রথম ইসলামী ঘরানার অনলাইন পত্রিকা ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকমের আয়োজনে শুরু হতে যাচ্ছে স্বল্পমেয়াদী সাংবাদিকতা কোর্স।অংশগ্রহণ করতে যোগাযোগ করুন এই নাম্বারে-০১৭১৯৫৬৪৬১৬এছাড়াও সরাসরি আসতে পারেন ইনসাফ কার্যালয়ে।ঠিকানা – ৬০/এ পুরানা পল্টন ঢাকা ১০০০।

Posted by insaf24.com on Monday, October 29, 2018


ইহুদিবাদী ইসরাইলি কারাগারে দুর্বিসহ বন্দি জীবন কাটাচ্ছেন নিরপরাধ ফিলিস্তিনিরা
Date: জানুয়ারি ১১, ২০১৯
ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | মুসলিম বিশ্ব ডেস্ক


ইহুদিবাদী ইসরাইলের ‘এতজিওন’ কারাগারে আটক ফিলিস্তিনি বন্দিরা দুর্বিসহ জীবন কাটাচ্ছেন বলে খবর দিয়েছে ফিলিস্তিনি বন্দি বিষয়ক অধিকার পরিষদ- আল-আহ্‌দ। এটি বলেছে, এই প্রচণ্ড শীতে গরম কাপড় ও চিকিৎসা সামগ্রীর তীব্র অভাবে ব্যাপক কষ্ট পাচ্ছেন ফিলিস্তিনি বন্দিরা। শরীর গরম রাখার জন্য তাদেরকে গরম কাপড় কিংবা কম্বল সরবরাহ করেনি ইহুদিবাদী কর্তৃপক্ষ।

ওই পরিষদ জানিয়েছে, ইসরাইলি কারা কর্তৃপক্ষ পূর্ব পরিকল্পিতভাবে ফিলিস্তিনি বন্দিদের কষ্ট দেয়ার জন্য এই ব্যবস্থা নিয়েছে। এ ছাড়া, ফিলিস্তিনি বন্দিদেরকে নিয়মিত মারধর করা হয় বলে জানিয়ে ওই পরিষদ বলেছে, সকল আন্তর্জাতিক আইন ও ঘোষণা লঙ্ঘন করে এ কাজ করে যাচ্ছে ইহুদিবাদীরা।

ফিলিস্তিনি বন্দি বিষয়ক চিকিৎসা কেন্দ্র জানিয়েছে, ২০১৮ সালে ইহুদিবাদী ইসরাইল পাঁচ হাজার ৭০০ ফিলিস্তিনিকে আটক করেছে যাদের মধ্যে ৯৮০টি শিশু ও ১৭৫ জন নারী রয়েছেন। এ ছাড়া, ফিলিস্তিনি বন্দি বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে ২০১৮ সালকে ফিলিস্তিনি বন্দিদের জন্য ‘সবচেয়ে খারাপ বছর’ বলে উল্লেখ করে জানিয়েছে, এ বছর নির্যাতিত এই জনগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে গণগ্রেফতার অভিযান চালিয়েছে ইসরাইল।

উৎস, পার্সটুডে