নতুন করে নির্বাচন না দিলে কঠোর আন্দোলন : বামজোট

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বাতিল করে নিরপেক্ষ সরকারের অধীন নতুন নির্বাচন দেয়ার দাবি জানিয়েছেন বাম গণতান্ত্রিক জোট। জাতীয় প্রেসক্লাবে গণশুনানিতে এ দাবি করেন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেয়া বাম জোটের প্রার্থীরা।

শুনানিতে যার যার নির্বাচনি এলাকার ভোটে অনিয়মের অভিযোগ তুলে ধরেন জোটের নেতারা। ভোটের ফল বাতিল করে নতুন নির্বাচন না দিলে কঠোর আন্দোলনের হুশিঁয়ারি দেন জোটের নেতারা।

তফসিল ঘোষণার আগেই সংসদ ভেঙে বর্তমান সরকারের পদত্যাগ, নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার গঠন, নির্বাচন কমিশন পুর্নগঠন ও নির্বাচনী ব্যবস্থার আমুল সংস্কার চায় নতুন এ জোট। একাদশ জাতীয় নির্বাচনের আগে সিপিবি-বাসদ-গণতান্ত্রিক বাম মোর্চার আটটি দল নিয়ে আত্মপ্রকাশ করে বাম গণতান্ত্রিক জোট নামে রাজনৈতিক নতুন মঞ্চ। মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত চেতনায় সমাজতন্ত্রের লক্ষ্যে জনগণের গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ও সরকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলন জোরদার করার উদ্দেশ্যে গঠিত হয় এ জোট।

যে আটটি দল নিয়ে বাম গণতান্ত্রিক জোট, এগুলো হল- বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি), বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ), বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (মার্কসবাদী), গণসংহতি আন্দোলন, বাংলাদেশের ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগ, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টি ও বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক আন্দোলন।


ইনসাফ সাংবাদিকতা কোর্স

ইনসাফ সাংবাদিকতা কোর্সদেশের প্রথম ইসলামী ঘরানার অনলাইন পত্রিকা ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকমের আয়োজনে শুরু হতে যাচ্ছে স্বল্পমেয়াদী সাংবাদিকতা কোর্স।অংশগ্রহণ করতে যোগাযোগ করুন এই নাম্বারে-০১৭১৯৫৬৪৬১৬এছাড়াও সরাসরি আসতে পারেন ইনসাফ কার্যালয়ে।ঠিকানা – ৬০/এ পুরানা পল্টন ঢাকা ১০০০।

Posted by insaf24.com on Monday, October 29, 2018


বাংলাদেশে আসছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার বিশেষজ্ঞ
Date: জানুয়ারি ১১, ২০১৯
ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


শিগগির বাংলাদেশ সফরে আসছেন মিয়ানমারের মানবাধিকার পরিস্থিতি বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ দূত ইয়াং লি।

জেনেভা থেকে পাওয়া বার্তা অনুসারে, মিয়ানমারের প্রতিবেশী দুই দেশে লি’র ১১ দিনব্যাপী সফর শুরু হবে আগামী ১৪ জানুয়ারি, যা শেষ হবে ২৪ জানুয়ারি।

প্রথমে থাইল্যান্ড দিয়ে যাত্রা শুরু করা লি’র ১৯ জানুয়ারি ঢাকা পৌঁছার কথা রয়েছে। বাংলাদেশে আসার পর এখানকার শরণার্থী শিবিরগুলোতেও যাবেন তিনি।

মানবাধিকার বিশেষজ্ঞ লি’কে অসহযোগিতার ব্যাপারে নিজেদের সিদ্ধান্ত বহাল রেখেছে মিয়ানমার। এরফলে মিয়ানমারে প্রবেশ করতে পারবেন না জাতিসংঘের এ দূত।

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক বিশেষ এ দূতের সফর পরিকল্পনায় নোয়াখালীর ভাসানচরেও যাওয়ার কথা রয়েছে। এ দ্বীপটিতে রোহিঙ্গাদের সরিয়ে নেয়ার কথা ভাবছে বাংলাদেশ সরকার।