ভারতের উত্তর প্রদেশে ৪ মুসলিমকে হত্যা

4bk91caeea617ce6gs_800c450

ভারতের উত্তর প্রদেশের বিজনৌরে পেডা গ্রামের এক মুসলিম ছাত্রীকে উত্যক্ত করার প্রতীবাদ করায় গুলি করে ৪ মুসলিমকে হত্যা করা হয়েছে। শুক্রবার ভয়াবহ ওই ঘটনায় ১২ জন আহত হয়েছে। আহতদের বিজনৌর হাসপাতালে এবং গুরুতর আহতদের মিরাটে স্থানান্তর করা হয়েছে।

এই ঘটনার জন্য রাজ্যে ক্ষমতাসীন অখিলেশ সরকারকে দায়ী করেছে ‘রিহাই মঞ্চ’ নামে একটি সামাজিক সংগঠন। অপরাধীদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তি দাবি করেছে সংগঠনটি।

‘রিহাই মঞ্চ’-র সম্পাদক রাজীব যাদব বলেন, ‘বিজনৌরের পেডা গ্রামের এক মুসলিম ছাত্রীকে উত্যক্ত করে গ্রামের সংসার সিং পরিবারের কিছু ছেলে। নিগৃহীত ওই ছাত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে সংসার সিংয়ের বাসায় গেলে সংসার সিংয়ের নেতৃত্বে জাঠ সম্প্রদায়ের মানুষজন মুসলিমদের ওপর হামলা চালায়। ওই ঘটনা মুজাফফরনগর দাঙ্গার পুনরাবৃত্তি করারই চেষ্টা। হামলাকারীরা গুলি চালিয়ে একই পরিবারের সরফরাজ, আনিসুদ্দিন, এহসান এবং এক মহিলাকে গুলি করে হত্যা করে।’

অখিলেশ যাদব সরকারের আমলে এভাবে প্রকাশ্য দিবালোকে গণহত্যার ধারাবাহিকতা চলছে বলেও রিহাই মঞ্চের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। বর্তমান সরকারের আমলে ৫ হাজারের বেশি সাম্প্রদায়িক উত্তেজনাসহ নারী এবং দলিত নিপীড়নে দেশের মধ্যে উত্তর প্রদেশ এক নম্বরে রয়েছে বলেও তাদের দাবি।

মানবাধিকার কর্মী আইনজীবী আসাদ হায়াত বলেন, বিজনৌরে হওয়া সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ঘটনায় প্রমাণ হয়েছে রাজ্যে আইনশৃঙ্খলা বলে কিছু নেই এবং রাজ্য সম্পূর্ণভাবে সাম্প্রদায়িক অংশের কবলে পড়েছে। সরকার যদি মুজাফফরনগর দাঙ্গা থেকে শিক্ষা নিয়ে সাম্প্রদায়িক অংশের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিত তাহলে আজ বিজনৌরে তার পুনরাবৃত্তি ঘটত না।’

তিনি ওই ঘটনাকে সাধারণ বিষয় নয় বরং ষড়যন্ত্র করে পুলিশের সহযোগিতায় এটি ঘটানো হয়েছে বলেও আইনজীবী আসাদ হায়াত মন্তব্য করেছেন।

বিজনৌরের ওই ঘটনায় এ পর্যন্ত ৬ জন গ্রেফতার হয়েছে। উত্তেজনাপূর্ণ পেডা গ্রামে পুলিশি প্রহরা বসানো হয়েছে বলেছে পুলিশের এডিজি (আইনশৃঙ্খলা) দলজিৎ চৌধুরী জানিয়েছেন। মিশ্র বসতির ওই গ্রামটিতে মুসলিম, বেনিয়া, জাঠ এবং ব্রাহ্মণরা বাস করে।

উত্তর প্রদেশের সিনিয়র মন্ত্রী আজম খান বিজনৌরের ঘটনার তীব্র নিন্দা করে ‘বিজেপি পশ্চিম উত্তর প্রদেশে আতঙ্ক সৃষ্টি করে একটি সম্প্রদায়কে ভোট দান থেকে বিরত করার জন্য এখন থেকে চেষ্টা চালাচ্ছে’ বলে মন্তব্য করেছেন। অপরাধীদের রেহাই দেয়া হবে না এবং ক্ষতিগ্রস্তরা সুবিচার পাবেন বলেও আজম খান মন্তব্য করেছেন।

সূত্র: পার্সটুডে