আইনজীবীর মাধ্যমে হাজিরা দিয়েছেন খালেদা জিয়া

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি দুর্নীতির অভিযোগে দায়ের করা দুদকের মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া আইনজীবীর মাধ্যমে হাজিরা দিয়েছেন।

আজ রাজধানীর বকশিবাজার আলিয়া মাদরাসা মাঠে অবস্থিত ঢাকার-২ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক এএইচএম রুহুল ইমরানের আদালতে এ মামলার অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল।

আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে আইনজীবী জিয়া উদ্দিন জিয়া হাজিরা প্রদান করেন।

অপরদিকে মামলার আসামি ব্যারিস্টার আমিনুল হকের পক্ষে মামলাটি উচ্চ আদালতে স্থগিত থাকায় অভিযোগ গঠন শুনানি পেছানোর জন্য সময়ের আবেদন করেন আইনজীবী।

আদালত সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে আগামী ২৬শে ফেব্রুয়ারী অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য নতুন দিন ধার্য করেন। খালেদা জিয়ার আইনজীবী জিয়া উদ্দিন জিয়া এসব তথ্য জানিয়েছেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি উত্তোলন, ব্যবস্থাপনা ও রক্ষণাবেক্ষণে ঠিকাদার নিয়োগে অনিয়ম এবং রাষ্ট্রের ১৫৮ কোটি ৭১ লাখ টাকা ক্ষতি ও আত্মসাতের অভিযোগে ২০০৮ সালের ২৬শে ফেব্রুয়ারি শাহবাগ থানায় মামলাটি করা হয়। ওই বছর ৫ই অক্টোবর ১৬ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

মামলায় খালেদা জিয়া ছাড়া অন্য আসামিরা হলেন, সাবেক অর্থমন্ত্রী এম. সাইফুর রহমান (মৃত), সাবেক স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী আবদুল মান্নান ভূঁইয়া (মৃত), সাবেক শিল্পমন্ত্রী মতিউর রহমান নিজামী (মৃত), সাবেক সমাজকল্যাণমন্ত্রী আলী আহসান মো. মুজাহিদ (মৃত), ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, এম কে আনোয়ার (মৃত), এম শামসুল ইসলাম (মৃত), আলতাফ হোসেন চৌধুরী, ব্যারিস্টার আমিনুল হক, এ কে এম মোশাররফ হোসেন, জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সচিব নজরুল ইসলাম, পেট্রোবাংলার সাবেক চেয়ারম্যান এস আর ওসমানী, সাবেক পরিচালক মঈনুল আহসান, বড় পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানির সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম ও খনির কাজ পাওয়া কোম্পানির স্থানীয় এজেন্ট হোসাফ গ্রুপের চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন।


ইনসাফ সাংবাদিকতা কোর্স

ইনসাফ সাংবাদিকতা কোর্সদেশের প্রথম ইসলামী ঘরানার অনলাইন পত্রিকা ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকমের আয়োজনে শুরু হতে যাচ্ছে স্বল্পমেয়াদী সাংবাদিকতা কোর্স।অংশগ্রহণ করতে যোগাযোগ করুন এই নাম্বারে-০১৭১৯৫৬৪৬১৬এছাড়াও সরাসরি আসতে পারেন ইনসাফ কার্যালয়ে।ঠিকানা – ৬০/এ পুরানা পল্টন ঢাকা ১০০০।

Posted by insaf24.com on Monday, October 29, 2018


ধর্ম-বর্ণ-জাতি নির্বিশেষে সকলের সমান অধিকার আমরা নিশ্চিত করবো : প্রধানমন্ত্রী
জানুয়ারি ৩১, ২০১৯
ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কেউ যেন অবহেলিত না থাকে, সবাই যাতে সমান সুযোগ পায়; সে লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার।

বৃহস্পতিবার উচ্চশিক্ষায় অধ্যয়নরত সমতলের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ৫শ’ মেধাবী শিক্ষার্থীকে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জীবনমান যাতে উন্নত হয় সেদিকে বিশেষ নজর দিয়ে কাজ করে যাচ্ছে সরকার। এ লক্ষ্যে প্রধনমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট ফান্ড গঠন করা হয়েছে। ২ কোটি চার লাখ শিক্ষার্থী বৃত্তি পাচ্ছে। আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে পেশাগত উন্নয়নে যাতে নৃ-গোষ্ঠীরা কাজ করতে পারে সে লক্ষ্যে বিভিন্ন ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে সরকার।

তিনি জানান, সমাজিক-সাংস্কৃতিক শিক্ষায় আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে যেন সকল গোষ্ঠী কাজের সমান সুযোগ পায়; কেউ যাতে পিছিয়ে না থাকে সে লক্ষ্যে বিভিন্ন ট্রেনিং এর ব্যবস্থা করেছে সরকার।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের দেশ পরিচালনার ক্ষেত্রে দেশের সার্বিক কাজে অবদান রাখতে হবে। তবে নিজেদের স্বকীয় কাজকে ভুলে গেলে চলবে না। সাথে সাথে প্রযুক্তির ব্যবহার করে জাতীয় অর্থনীতিতে অবদান রাখতে হবে।

তিনি আরও বলেন, দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। কেউ ক্ষুদ্র নয়। ধর্ম-বর্ণ-জাতি নির্বিশেষে সকলের সমান অধিকার আমরা নিশ্চিত করবো। দেশ আমাদের এ কথা সবাই মনে রেখে যার যার ক্ষেত্রে সবাই কাজ করে যাব।