পদত্যাগ করবেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী?

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | আন্তর্জাতিক ডেস্ক


ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে আগামী গ্রীষ্মে পদত্যাগ করতে পারেন বলে ডেইলি মেইল-সহ বিভিন্ন গণমাধ্যম খবর দিয়েছে। সূত্রগুলো বলছে, মার্চ মাসে ব্রেক্সিট চুক্তি পাস হয়ে গেলে তিনি প্রধানমন্ত্রীত্ব ছাড়বেন।

থেরেসা মে’র ঘনিষ্ঠজনেরা বলছেন, প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করার জন্য প্রস্তুত; তবে প্রতিদ্বন্দ্বী বরিস জনসনকে ঠেকানোর জন্য তিনি নতুন নির্বাচনে লড়তে পারেন। আগামী ২৯ মার্চ ব্রেক্সিট চুক্তি বাস্তবায়নের কাজ শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

গত মাসে ব্রিটিশ পার্লমেন্টের নিম্নকক্ষ হাউস অব কমন্সে ঐতিহাসিক পরাজয়ের পর থেরেসা মে স্বীকার করতে বাধ্য হন যে, তিনি সাধারণ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না।

প্রধানমন্ত্রী মে’র বন্ধু লিয়াম ফক্সের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র ‘ডেইলি সান’-কে জানিয়েছেন, বাণিজ্যমন্ত্রী লিয়াম মনে করেন ২৯ মার্চের পর পদত্যাগ করবেন থেরেসা মে। লিয়াম বলেন, প্রধানমন্ত্রী তাকে যেসব কথা বলেছে তাতে তার পদত্যাগের সম্ভাবনা পরিষ্কার হয়েছে। তবে এ বিষয়ে এখনো কিছু বলেন নি থেরেসা মে। একটি সূত্র বলেছে, থেরেসা যা কিছু করবেন তা কেবল তার স্বামী ফিলিপ জানেন।

উৎস, পার্সটুডে


দেশে বেকারের সংখ্যা ২৬ লাখ ৭৭ হাজার, জানালেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী
ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৯
ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান বলেছেন, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো সম্প্রতি প্রকাশিত শ্রমশক্তি জরিপ অনুযায়ী ২০১৬-১৭ অর্থবছরে সারাদেশে বেকারের সংখ্যা ২৬ লাখ ৭৭ হাজার। এর মধ্যে ১০ লাখ ৪৩ হাজার শিক্ষিত তরুণ-তরুণী যারা উচ্চ মাধ্যমিক/স্নাতক/স্নাতকোত্তর পাস অর্থাৎ শিক্ষিত বেকারের সংখ্যা প্রায় ৪০ শতাংশ।

মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে রুস্তম আলী ফরাজীর (পিরোজপুর-৩) এর প্রশ্নের জবাবে একথা জানান তিনি।

এ সময় মন্ত্রী দেশের বেকার সমস্যা দূর করার জন্য সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের বিস্তারিত তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকার বেকার যুবসমাজকে বেকারত্ব থেকে মুক্ত করার লক্ষ্যে কর্মসংস্থান ও অন্যান্য সুবিধার মাধ্যমে স্বাবলম্বী করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় বিগত ১০ বছরের গুরুত্বপূর্ণ কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। বর্তমান সরকারের শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন দফতর অধিদপ্তর সমূহের ১২৫৩ থেকে বৃদ্ধি করে ২১৩৭ উন্নীত করা হয়েছে। এরমধ্যে ৫৬৯ জনকে রাজস্ব খাতে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

মন্ত্রী আরও বলেন, বাংলাদেশের বিপুল জনসংখ্যাকে দক্ষতাভিত্তিক প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ ও কর্মমুখী জনশক্তিতে রূপান্তরের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে ন্যাশনাল স্কিল ডেভলপমেন্ট কাউন্সিল গঠন করা হয়েছে। জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কাউন্সিল সরকারের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের সমন্বয়ে কমিটি অফ ন্যাশনাল স্কিল ডেভলপমেন্ট কাউন্সিল গঠন করেছে। সব পর্যায়ে দক্ষ মানব সম্পদ সৃষ্টির লক্ষ্যে যুব উন্নয়ন প্রশিক্ষণ পদ্ধতি উদ্ভাবন, প্রশিক্ষণ ও আন্তর্জাতিক শ্রমবাজারে কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শ্রমিকদের মানোন্নয়ন করা হচ্ছে।