কারামুক্ত হলেও গুম হতে পারেন মাহমুদুর রহমান: খন্দকার মাহবুব

অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেনমাহমুদুর রহমান কারামুক্ত হলেও গুমের আশঙ্কা থেকে মুক্ত নন এমন আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বিপন্ন গণতন্ত্র, পরাধীন গণমাধ্যম ও মজলুম সম্পাদক মাহমুদুর রহমান শীর্ষক এক আলোচনা সভায় এ মন্তব্য করেন তিনি।

খন্দকার মাহবুব বলেন, সরকার গণমাধ্যমকে গলা চেপে ধরার চেষ্টা করছে। এরই ধারাবাহিকতায় মাহমুদুর রহমান ৭০ টি মামলায় জামিন পাওয়ার পর আবারো দুইটি পুরাতন মামলায় শ্যোন এ্যারেস্ট দেখিয়ে তাকে কারাগারে আটক রাখা হয়েছে। তবে তিনি কারামুক্ত হলেও গুম-খুনের আশঙ্কা থাকছেই।

ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনাম আওয়ামী লীগেরই লোক উল্লেখ করে এ আইনজীবী বলেন, বর্তমান সরকারের নীতি অনুযায়ী গণমাধ্যমকে সবসময় তার প্রশংসা করতে হবে। কেউ এর ব্যতিক্রম করলেই, তার বিরুদ্ধে মানহানি ও রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করা হবে। তারই প্রমাণস্বরু মাহফুজ আনামের বিরু ৯ দিনে ৮২,০০০ কোটি টাকার মানহানি ও ৬৮ টি মামলা দেয়া হয়েছে। অথচ তিনি আওয়ামী লীগেরই লোক ছিলেন।

মাহফুজ আনামের বিরু আদালতের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মানহানির মামলায় কখনই গ্রেপ্তারি পরোয়ানা হতে পারে না। ইতিহাসের এই প্রথম কোনো মানহানির মামলায় একজন নামকরা সম্পাদকের বিরুদ্ধে সমন জারির পরিবর্তে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হল। যা আইনে ব্যতিক্রম।

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন প্রসঙ্গ টেনে নির্বাচন কমিশনের উদ্দেশে তিনি বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে না পারলে জনগনের স্বার্থে আপনারা পদত্যাগ করুন।

সভা থেকে সরকারকে হুঁশিয়ারি দিয়ে খন্দকার মাহবুব বলেন, আপনারা জানেন না আগ্নেয়গিরির উপর বসে আছেন। অতীতের কোনো সরকার মানুষের ভোটের অধিকার, বাক স্বাধীনতা খর্ব করে টিকে থাকতে পারেনি, আপনারাও পারবে না। গণবিস্ফোরণের মাধ্যমে যে কোনো সময় এ সরকারের পতন হবে।

জাতীয়তাবাদী প্রচার দল এ আলোচনা সভার আয়েজন করে।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ নূরুল আফসার বাহাদুরের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন- যুব দলের সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, বিএনপির সহ-তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, জাগপার সভাপতি শফিউল আলম প্রধান প্রমুখ।