জানুয়ারি ১৯, ২০১৭

পাক-ভারত সীমান্তে পুরোপুরি যুদ্ধাবস্থা বিরাজ করছে

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

2016-09-30_124018ভারত-পাকিস্তানের সীমান্তে এখন পুরোপুরি যুদ্ধাবস্থা বিরাজ করছে। সীমান্তে উভয়পক্ষ শক্তি বৃদ্ধি করে যুদ্ধের মহাড়া দিচ্ছে। এমতাবস্থায় যেকোনো সময় যুদ্ধের ঘন্টা বেজে উঠতে পারে এমন আশঙ্কায় ভারত পাকিস্তান দুই সীমান্তেই খালি করা হচ্ছে গ্রামগুলো। সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে গ্রামের মানুষদের।

এদিকে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে জানিয়েছে সেনাদের ছুটি বাতিলের খবর।

বৃহস্পতিবার সকালে কাশ্মীরে উরি সেনাঘাঁটিতে হামলার ‘পাল্টা জবাবে’ কাশ্মিরে নিয়ন্ত্রণরেখা (লাইন অব কন্ট্রোল) বরাবর ভারতের কথিত ‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের’ সময় পাকিস্তানি বাহিনীর সাথে সংঘর্ষে অন্তত ১৪ ভারতীয় সেনা নিহত হয়েছে। পাকিস্তানের সিনিয়র সাংবাদিক হামিদ মির এ তথ্য জানিয়েছেন। ভারতীয় বাহিনী আঘাত হানার কয়েক ঘণ্টা পর তিনি এই দাবি করেন। ভারত দাবি করেছে, তাদের আক্রমণে দুই পাকিস্তানি সৈন্য নিহত হয়েছে। এছাড়া অর্ধ শতাধিক জঙ্গি নিহত হয়েছে।

পাকিস্তানে ভারতের ওই হামলার পর স্বভাবতই আরো শক্ত জবাব দিতে পাকিস্তান প্রস্তুতি ও পরিকল্পনা নিচ্ছে বলে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবর আসছে। ওই আশঙ্কাতেই ভারতের সীমান্তের গ্রামগুলো থেকে সাধারণ মানুষদের সরিয়ে নেওয়ার খবর জানিয়েছে ইন্ডিয়া টুডে। অপরদিকে পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ডনও এক প্রতিবেদনে জানায় পাকিস্তানের সীমান্তের গ্রাম থেকে নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়ার খবর।

এ ছাড়া ছুটিও বাতিল করা হয়েছে ভারতীয় সেনাদের। বুধবার সেনাবাহিনীর এক বিশেষ আদেশে সেনাদের সকল ছুটি বাতিল করা হয়। সাধারণত যুদ্ধকালীন অবস্থায় সেনা ছুটি বাতিলের সিদ্ধান্ত হয় বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যমগুলো। অবশ্য পাকিস্তানের সেনাদের ছুটি বাতিলের কোনো খবর এখনো পাওয়া যায়নি।