নারায়ণগঞ্জে আগুন, হুড়োহুড়িতে আহত ১০

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


প্রতিকী ছবি

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১২নং ওয়ার্ডের ফতুল্লায় একটি মন্দিরে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এসময় হুড়োহুড়িতে ১০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে পাঁচজনকে শহরের খানপুরের ৩০০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

শুক্রবার (২২ ফেব্রুয়ারি) রাত ৮টায় ইসদাইরে রাধাকৃষ্ণ মন্দিরে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, শুক্রবার রাতে রাধাকৃষ্ণ মন্দিরে প্রসাদ রান্না হচ্ছিল। এসময় মন্দিরের ভেতরে একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বেশ কয়েকজন নারী-পুরুষের জমায়েত ছিল। রান্নার এক পর্যায়ে চুলা থেকে আগুনের ফুলকি ছড়িয়ে আশেপাশে থাকা বাঁশের উপর পড়ে যায়। এসময় বাঁশে আগুন ধরে গেলে আশেপাশে থাকা প্যান্ডেলে ছড়িয়ে পড়ে। তখন আতঙ্কে লোকজন হুড়োহুড়ি করে বের হতে গিয়ে ১০ জন আহত হন। আহতদের কয়েকজনকে শহরের খানপুরের ৩০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক (জোন-২) মামুনুর রশিদ জানান, আগুনে তেমন কোন ক্ষয়-ক্ষতি হয়নি। হুড়োহুড়ি করতে গিয়ে হয়তো কয়েকজন আহত হয়ে থাকতে পারে।



ইনসাফ সাংবাদিকতা কোর্সে অংশগ্রহণকারীদের সনদ প্রদান
ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৯
ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি



দেশের প্রথম ইসলামী ঘরানার অনলাইন পত্রিকা ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকমের আয়োজনে ‘ইনসাফ সাংবাদিকতা কোর্স’এর প্রথম সেমিস্টারে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের সনদ প্রদান করা হয়েছে।

সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর ফকিরাপুলে অবস্থিত হোটেল রাহমানিয়া ইন্টারন্যাশনালে এক আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানে তাদের সনদ প্রদান করা হয়।

ইনসাফের সম্পাদক ও প্রকাশক এবং ইনসাফ সাংবাদিকতা কোর্সের প্রধান পরিচালক সাইয়েদ মাহফুজ খন্দকারের সভাপতিত্বে সনদ প্রদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, মাসিক আদর্শ নারীর সম্পাদক মুফতী আবুল হাসান শামসাবাদী, সাহিত্যিক মাওলানা মুহাম্মাদ জয়নুল আবেদিন, ইনসাফের উপদেষ্টা সম্পাদক মুসা বিন ইজহার চৌধুরী, ইনসাফের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য মিডিয়া ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মাওলানা মুহাম্মাদ সালাহউদ্দীন জাহাঙ্গীর, মুফতী হাবিবুল্লাহ মিসবাহ, মুফতী নেয়ামত উল্লাহ আমীন, মুফতী মামুন আবদুল্লাহ কাসেমী প্রমুখ।

শতাধিক শিক্ষার্থী থেকে প্রাথমিক বাচাইয়ের পর মাত্র ১৫ জন ‘ইনসাফ সাংবাদিকতা কোর্স’এর প্রথম সেমিস্টারে অংশগ্রহণের সুযোগ পান। কোর্সে অংশগ্রহণ করা ১৫ জন থেকে প্রথম সেমিস্টারের সমাপনি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ায় ৯ জনকে সনদ প্রদান করা হয়।