তাওবা আল্লাহর নৈকট্য লাভের অন্যতম মাধ্যম : ডক্টর আ ফ ম খালিদ

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | মাহবুবুল মান্নান


চট্টগ্রাম ওমরগনি এমই এস কলেজ এর সাবেক অধ্যাপক লেখক ও গবেষক ডক্টর আ ফ ম খালিদ হোসেন বলেছেন, আল্লাহ তাআলার দরবারে বান্দার তাওবা করা অধিক পছন্দনীয়। মানুষ অপরাধ করার পর আল্লাহ তাআলার নিকট তাওবা করা ও গুনাহের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করাকে তিনি অত্যধিক পছন্দ করেন। সুতরাং তাওবা আল্লাহর নৈকট্য লাভের অন্যতম মাধ্যম।

মঙ্গলবার(১২মার্চ) চট্টগ্রাম সাতকানিয়া ছদাহা আল্লামা শাহ ছূফী ইসমাঈল রহ. স্মরণে আয়োজিত শানে রেসালত সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। সম্মেলন আয়োজন করেন ছদাহা আল-ইখওয়ান ইসলামী ঐক্য কাফেলা।

ডক্টর খালিদ হোসেন আরো বলেন, আল্লাহ রাব্বুল আলামীন তাওবার মাধ্যমে বান্দাকে পুত পবিত্র করেন। তবে তাওবা কবুল হওয়ার জন্য শর্তাবলী কি তা আমাদের জানা থাকা জরুরি। খারাপ কাজ-গুনাহ, পাপচার ও আল্লাহর নাফরমানি হতে অনুতপ্ত হয়ে একনিষ্ঠভাবে ফিরে এসে, বান্দা নেক কাজ করার মাধ্যমে তার প্রভুর দিকে ফিরে আসাকে তাওবা বলা হয়।

হাফেজ মাওলানা শায়খ মুহাম্মদ ফারুকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত শানে রেসালত সম্মেলনে আরো বয়ান করেন মুফাচ্ছিরে কুরআন মাওলানা ছৈয়দুল আলম আরমানী ও বাঁশখালী মনকিচর মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা আবু বকর।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা জামেয়াতুল আবরার যাত্রাবাড়ীর মুহাদ্দিস মাওলানা সাবের ইসমাঈল, হাফেজ শাহেদ হেলালী, মাওলানা ইব্রাহিম খলিল, মুহাম্মদ হেলাল উদ্দীন প্রমুখ।

সংগঠনের পক্ষ থেকে মাওলানা ডক্টর আ ফ ম খালিদ হোসেনকে বিশেষ সম্মামনা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।