কওমী সনদের স্বীকৃতি নিয়ে যে কোন ধরনের চক্রান্ত প্রতিহত করা হবে

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

98103696_n-1

আজ ০৮ অক্টোবর দুপুর ১২টায় ছাত্র পরিষদ চট্টগ্রাম মহানগরীর কার্যালয়ে নগর সভাপতি মাওলানা ওসমান কাসেমীর সভাপতিত্বে
“কওমী মাদরাসা শিক্ষার সরকারি স্বীকৃতি এবং বর্তমান প্রেক্ষিত” শীর্ষক এক গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করা হয়।

গোলটেবিল বৈঠকে পরিষদ নেতৃবৃন্দ বলেন, কওমী মাদরাসার স্বকীয়তা রক্ষা ও স্বাতন্ত্র্যবোধ, সরকারী নিয়ন্ত্রণ মুক্ত, এমপিওভূক্ত না করা, আলীয়ায় আরোপিত শর্তগুলো আরোপ না করা, সরকারী অডিট নিয়োগ না করা এবং কওমী মাদরাসা কর্তৃপক্ষ কোথাও উল্লেখিত শর্তাবলীর বিরোধ দেখলে সরকারের স্বীকৃতি হতে দায়মুক্তি ঘোষনার ক্ষমতা প্রদানের শর্তে সকল বোর্ড ও শীর্ষ উলামায়েকেরামের সমন্বিত প্রয়াসে কওমী মাদরাসা সনদের সরকারি স্বীকৃতি হতে হবে।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, কওমী মাদ্রাসা বাংলাদেশের ইসলামী শিক্ষা- সংস্কৃতি, জীবনবোধ ও চেতনার অন্যতম রক্ষক। কওমী আলেমগণের রীতি, ঐতিহ্য ও আদর্শের বাইরের যে কোন নিয়ন্ত্রণ, স্বীকৃতি, আইন ও হস্তক্ষেপ হবে কওমীধারার জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। হাজার বছরের ইসলামী ধারা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে বিকৃত ও সরকারি প্রভাবগ্রস্ত করার ষড়যন্ত্র কিছুতেই সফল হতে দেয়া হবে না। কওমী আলেম নেতৃবৃন্দ যে সিদ্ধান্ত নেবেন, দেশের সর্বস্তরের তৌহিদী জনতা সে কর্মসূচি পালন করবে। ইসলামী শিক্ষা ও জীবনধারার উপর নাস্তিক-মুরতাদদের কালোছায়া তৌহিদীজনতা মেনে নেবে না। ধর্মপ্রাণ মানুষ তা মেনে নেবে না। ইসলামী শিক্ষা ও কওমী মাদরাসার হেফাজতে দেশবাসী আলেম-ওলামা পীর-মাশায়েখগণের নেতৃত্বে ছাত্রজনতাকে সাথে নিয়ে দুর্বার গণআন্দোলন গড়ে তুলবো। অতীতের যে কোন আন্দোলনের তুলনায় দেশের গণমানুষের ধর্মীয় ঐতিহ্য সম্পদ ও গৌরব রক্ষার এ আন্দোলন হবে সর্বাপেক্ষা প্রলয়ংকারী। আমরা কেবল শুনেছি, বিলের চেহারা এখনো দেখিনি। কওমী শিক্ষা ধ্বংসের ষড়যন্ত্র রুখতে প্রতিটি কওমী মাদরাসায় শীঘ্রই “কওমী মাদরাসা ছাত্র পরিষদ বাংলাদেশ” এর কমিটি গঠন করা হবে।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও প্রধান উপদেষ্টা মাওলানা আ,ন,ম,আহমদ উল্লাহ, মাওলানা জোনাইদ জওহর, মাওলানা ইয়াছির মুহাম্মদ আরিফ, মাওলানা নুরুল আলম ও ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইকবাল খলিল, সেক্রেটারি জেনারেল মাহমুদ মুজিব, শোয়াইব আল কাসেমী, নোমান অলিউল্লাহ হাঃ হুজাইফা, ইয়াছিন আরাফাত, আতীক মুহাম্মদ, আবরার হোসেন ,কফিল উদ্দীন, জমির উদ্দীন, আব্দুল করীম, মাহমুদুল হাসান, নাজমুছ সাকিব, সাঈদ হোছাইন, আল আমীন সাকী, শোয়াইবুল ইসলাম, এইছ এম খলিল জামাল উদ্দীন, শাহাদাত হোছাইন, শারাফাত হোছাইন, আব্দুল করিম, আব্দু্ হক, রহিমুূদ্দীন, শাহাবুদ্দীন প্রমুখ।