কুদসে ইসরাইলি আগ্রাসনের নিন্দা জানিয়েছে বিশ্ব মুসলিম স্কলার ইউনিয়ন

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | আরিফ মুসতাহসান



ফিলিস্তিনি মুসলমানদের উপর হামলা-নির্যাতন ও পবিত্র আল আক্বসা মসজিদের গেট বন্ধের কারণে ইহুদিবাদী অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের নিন্দা জানিয়েছেন ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন অফ মুসলিম স্কলারস (আইইউএমএস)।

দোহা ভিত্তিক ‘আইইউএমএস’র কার্যালয় থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, ইহুদিবাদী অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইল কর্তৃক মুসলমানদের নির্যাতন সহ পবিত্র আল আক্বসার ইমাম ও মুসুল্লিদের গণহারে গ্রেফতার করা হচ্ছে। সাথে সাথে মুসলমানদের ঘরবাড়িতে বোমা ও বিমান হামলার মতো জঘন্যতম কাজ করছে। তারপরও আরব রাষ্ট্রগুলো দখলদারি ইহুদিবাদী অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রেখে চলছে।

আরব রাষ্ট্রগুলোর জায়নাবাদীদের সাথে উদার সম্পর্ক, ইহুদিবাদী অবৈধ রাষ্ট্র ইসরায়েল কর্তৃক ফিলিস্তিনিদের উপর হামলাকে সমর্থনের প্রমাণ দেয়। ইহুদিবাদী অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের এমন কর্মকাণ্ডকে বিপদজনক আখ্যা দিয়ে ওআইসি কর্তৃক পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি ইহুদিবাদী অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের আগ্রাসন আগের চেয়েও বেশিগুণে বৃদ্ধি পেয়েছে। তারা আল আক্বসার ইমাম-মুসুল্লিদের গ্রেফতার সহ মসজিদে ঢুকতে বাধা দিচ্ছে। বিক্ষুব্ধ মুসলিম জনতা আন্দোলনে এগিয়ে আসলে তাদেরকে ধরপাকড়, গুলি, টিয়ারগ্যাস ও নানানভাবে নির্যাতন করে যাচ্ছে দখলদারি ইহুদিবাদী অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইল।

উল্লেখ্য, জেরুজালেম মুসলমানদের তৃতীয় পবিত্রতম স্থান। ১৯৬৭ সালের আরব-ইসরায়েল যুদ্ধের পর পূর্ব জেরুজালেম (যেখানে আল আক্বসা অবস্থিত) সহ পশ্চিম তীরের কিছু অঞ্চল অবৈধভাবে দখল করে ইহুদিবাদী অবৈধ রাষ্ট্র ইসরায়েল। ১৯৮০ সালে তারা পুরো অঞ্চলকে নিজেদের দাবী করে যার আন্তর্জাতিক মহলে কোনো স্বীকৃতি ছিলো না। আন্তর্জাতিক আইন মতে ইহুদিবাদী অবৈধ রাষ্ট্র ইসরায়েলের পশ্চিম তীর দখল ও সেখানে ইসরায়েলী বস্তি স্থাপন সম্পূর্ণ অবৈধ বিবেচনা করা হয়।