সঙ্কট থেকে জনগণের দৃষ্টি সরাতে জিয়াকে অন্যভাবে উপস্থাপন: মির্জা ফখরুল

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরবিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, জিয়াউর রহমান পাকিস্তানের সাথে ‘কনফেডারেশন’ করার ষড়যন্ত্র করেছিলেন বলে সরকারদলীয় এমপির অভিযোগকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। মূল সঙ্কট থেকে জনগণের দৃষ্টি সরিয়ে নিতে জিয়াকে অন্যভাবে উপস্থাপনের চেষ্টা চলছে।

শুক্রবার শেরেবাংলা নগরে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সমাধিতে নিবেদন শেষে তিনি একথা বলেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, জিয়াউর রহমান স্বাধীনতা যুদ্ধের ঘোষক ছিলেন, তিনি পাকিস্তানের বিরুদ্ধে লড়াই করেছেন, দীর্ঘ নয় মাস লড়াই করেছেন বীরোত্তম উপাধি পেয়েছেন। পরবর্তীতে আধুনিক বাংলাদেশের সত্যিকার অর্থে স্থপতি তিনি ছিলেন।

তিনি আরো বলেন, জিয়া গণতন্ত্রকে পুনরায় ফিরিয়ে এনেছেন। সেই মানুষকে যদি কেউ অন্যভাবে চিহ্নিত করতে চায়, সেটা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। তাতে জনগণ বিভ্রান্ত হবে না।

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন প্রসঙ্গে ফখরুল বলেন, ইউপি নির্বাচনে প্রার্থী চূড়ান্ত করার কাজ চলছে। সঠিক সময়ে তা ঘোষণা করা হবে। বিএনপি নির্বাচনে যাচ্ছে, তবে সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে আমরা আশাবাদী নই।

দলের কাউন্সিল প্রসঙ্গে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব বলেন, আমরা কাউন্সিলের জন্য ভেন্যু চেয়েছিলাম, কিন্তু এখন পর্যন্ত আমাদের অনুমতি দেয়া হয়নি। আশা করি, গণতান্ত্রিক পরিবেশ ফিরিয়ে দিয়ে আমাদের অনুমতি দেয়া হবে।

বর্তমানে শিশু হত্যা প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, শিশু হত্যা প্রমাণ করে দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভেঙে পড়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব আমান উল্লাহ আমান, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন, সহছাত্র বিষয়ক সম্পাদক সুলতান সালাহ উদ্দিন টুকু, ছাত্রদল সভাপতি রাজিব আহসান, সাধারণ সম্পাদক মো. আকরামুল হাসান ও দপ্তর সম্পাদক মো. আবদুস সাত্তার পাটোয়ারি।