আজকের ওলামা সম্মেলন থেকে সরকারকে করা প্রস্তাবগুলো

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

 

2016-10-17_160157আজকের বেফাক আয়োজিত ঐতিহাসিক ওলামা সম্মেলন থেকে সরকারকে কয়েকটি প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।

প্রস্তাবগুলো হল-

দারুল উলুম দেওবন্দের আদলে কওমি মাদরাসার দাওয়ারেয়ে হাদিসের সনদকে ইসলামী স্টাডিজ ও আরবী সাহিত্য এম. এ. -এর সমমান দিতে হবে।

প্রস্তাবিত কওমি মাদরাসা শিক্ষানীতি ২০১২ এবং এর আলোকে তৈরিকৃত কওমি মাদরাসা শিক্ষা কর্তৃপক্ষ আইন ২০১৩ এর খসরা বাতিল করতে হবে।

২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬’ প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে গঠিত ৯ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির সকল কার্যক্রম বাতিল করতে হবে।

যুগোপযোগী করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করার নামে কওমি মাদরাসার স্বকীয়তা স্বাতন্ত্ররা বিপুপ্ত হয় এমন যে কোন সিদ্ধান্ত গ্রহন থেকে সরকারকে বিরত থাকতে হবে।

দেশের ৯২ ভাগ মুসলমানের সন্তানদেরকে ইসলামের বুনিয়াদী শিক্ষা দেওয়া ফরযে আইন। আবহমান কাল থেকে এ ফরযে আইনের কাজটিই আঞ্জাম দিয়ে যাচ্ছে বিদ্যমান সকল নূরানি মক্তব, হাফেজিয়া ও কওমি মাদরাসা, সে কারণেই পুরাতন ও নতুন মক্তব, হাফেজিয়া ও কওমি মাদরাসা স্থাপন ও পরিচালনাকে সরকারী নিবন্ধনের আওয়াতামুক্ত রাখতে হবে।

জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০ এবং তদালোকে প্রণীত শিক্ষা আইন ২০১৬ এর খসরা অবিলম্বে বাতিল করতে হবে।

প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ্যপুস্তকে চক্রান্তমূলক ভাবে বাদ দেওয়া ইসলামী ভাবধারার গল্প, রচনা কবিতাসমুহ পুনঃ অন্তর্ভুক্ত করতে হবে এবং হিন্দুত্ত্ববাদী ই ইসলাম বিদ্বেষী কবিতা, গল্প ও রচনাবলী শিক্ষা সিলেবাস থেকে বাদ দিতে হবে।

শিক্ষার সর্বস্তরে ইসলামী শিক্ষাকে প্রাধান্য দিতে হবে এবং ইসলামের বুনিয়াদী শিক্ষাকে (যা ফরজে আইন) বাধ্যতামূলক করতে হবে।

পাঠ্যপুস্তক প্রণয়ন পর্যালোচনা কার্যক্রমে দক্ষ ও বিজ্ঞ আলেমদের পরামর্শ নিতে হবে।