আমি তোহা বলছি

আমি তোহা বলছি

পর্দা

শাদমান ইবনে শহীদ
শাদমান ইবনে শহীদ

আমি তোহা বলছি
শাদমান ইবনে শহীদ

আমি তোহা।
আমার বাড়ী নাফ নদীর পাশেই।
একটা গোপন বন্ধুত্বের গল্প শুনবে?

আচ্ছা, তাহলে শোনো,
আয়লান আর আমার বন্ধুত্বটা ছিলো অনেক দিনের,
দেশ পরিচয়ে আমরা দূর দেশেরই তবে
আমরা একজন আরেকজনকে চোখ বন্ধ করলেই দেখতে পেতাম,
অলৌকিক ভাবলেও আমাদের কাছে ব্যাপারটা খুব স্বাভাবিক।
সামনাসামনি কখনো দেখা হয়নি কিন্তু সবসময় চোখের সামনেই আছে যেন,
দুজনের বয়সের খানিকটা তফাৎও ছিলো বোধহয়, তবে মিল ছিলো খুব।
দেখতে হুবহু একই আমরা,একেবারে জমজ ভাইয়ের মতন।
হঠাৎ আয়লান চলে যায়।
আর পৃথিবীও তখন আয়লানকে চিনে ফেলে।

চলে যাওয়ার পর একদিন আয়লানকে স্বপ্নে দেখলাম।
আমি আয়লানকে বলললাম, তোমাকে তো সবাই চেনে এখন,
আয়লান তখন বললো, তোহা, দেখো তোমাকেও একদিন ঠিক আমার মতই চিনবে। সবাই জানবে, তুমি কে।
তবে, তখন তুমি আমার সাথে থাকবে।

আমি সেদিনের স্বপ্নের কথাগুলো বুঝতে পারিনি।
বুঝবো কি করে? বয়সই বা কত!
এখন আমার কাছে সব পরিষ্কার।
আমি এখন সব বুঝে গেছি। পৃথিবীর কাছে আমিও একজন পরিচিত।

ও হ্যাঁ, আমি আর আয়লান এখন একসাথেই থাকি।
আমাদের বন্ধুত্ব হয়েছে আরো গাঢ়।
তোমাদের বলি, এখানে আমরা সুখে আছি। বেশ ভালো আছি।