৩ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় আসছেন মাওলানা মাহমুদ মাদানী

মাওলানা মাহমুদ মাদানীফেব্রুয়ারিতে আসছেন মাওলানা মাহমুদ আসআদ মাদানী। তিনি সাইয়্যিদ আসআদ মাদানীর রহ. সুযোগ্য সাহেবজাদা ও খলিফা এবং জমিয়ত উলামা হিন্দের জেনারেল সেক্রেটারি। মাহমুদ মাদানী পাঁচদিনের আধ্যাত্মিক ও ধর্মীয় সম্মেলনে যোগদানের উদ্দেশে বাংলাদেশে আসছেন।

৩ ফেব্রুয়ারি বুধবার দিল্লী থেকে জেট ইয়ার ওয়াইজে তিনি ঢাকায় অবতরণ করবেন। পাঁচদিনের সফরকে কেন্দ্র করে ঢাকা, চট্টগ্রাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও হবিগঞ্জে বিশেষ কিছু প্রোগ্রামের আয়োজন করা হয়েছে।

বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার ঢাকা মহানগরী সেক্রেটারি সদরুদ্দীন মাকনুন জানান, বুধবার বিকেল ৪টায় বিমানবন্দরে নেমেই রাজধানীর খিলগাঁওয়ে আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ প্রতিষ্ঠিত ইকরা বাংলাদেশের বাৎসরিক পুরস্কার বিতরণী ও সীরাতুন্নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সম্মেলনে আলোচনা পেশ করবেন। এ অনুষ্ঠানে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান ও এ. কে. এম. রহমতুল্লাহ এমপি উপস্থিত থাকবেন।

বুধবার বাদ ঈশা রাজধানীর আফতানগরে অবস্থিত মুফতি মুহাম্মাদ আলী পরিচালিত ইদারাতুল উলুম মাদরাসায় ইসলাহি ইজতেমায় যোগদান করবেন।

৪ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার রাজধানীর রাজফুল বাড়িয়া মাদরাসার মাহফিলে কথা বলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে। সূত্র জানিয়েছে, রাজফুলবাড়িয়া থেকে ফেরার পথে জামিউল উলুম মাদরাসায় [মিরপুর-১৪] ইসলাহি আলোচনা পেশ করবেন।

ঢাকা থেকে আড়াইটায় হবিগঞ্জের উদ্দেশে রওনা দেয়ার কথা রয়েছে। প্রথমেই হবিগঞ্জ শহরের ইনাতাবাদে ইকরা বাংলাদেশ মাদরাসায় বাদ মাগরিব বায়আত ও দুআ অনুষ্ঠানে নসিহত পেশ করবেন। বাদ ঈশা আল্লামা তাফাজ্জুল হক পরিচালিত জামিআ আরাবিয়া উমেদনগরের [মাদরাসা] বার্ষিকসভায় যোগদান করবেন। রাতেই আবার ঢাকার উদ্দেশে রওনা করবেন তিনি।

৫ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার রাজধানীর তেজগাঁওয়ের বাবলি মসজিদে ইসলাহি আলোচনা পেশ করার কথা রয়েছে। জুমুআর নামাজ আদায় করবেন মাওলানা শরফউদ্দীন পরিচালিত উসমান বিন আফ্ফান রা. মাদরাসায়।

দুপুরের পর চট্টগ্রামের উদ্দেশে বিমানে চট্টগ্রামে যাবেন। ইসলামি সম্মেলন সংস্থার উদ্যোগে আয়োজিত চট্রগ্রামের জমিয়তুল ফালাহ ময়দানে আন্তর্জাতিক মহাসম্মেলনে যোগদানের কথা জানা গেছে। আবার রাতে চট্টগ্রাম থেকে রেলযোগে ঢাকায় ফিরে আসবেন।

৬ ফেব্রুয়ারি শনিবার মুফতি আবদুর রহমান রহ. প্রতিষ্ঠিত ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার পরিদর্শন করে রাজধানীর কদমতলীতে অবস্থিত মারকাযুল হিদায়ায় আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন। এরপর জামিআ ইবরাহিমিয়া ও জামিয়া ইসলামিয়া মাদানীনগরের দুয়া অনুষ্ঠানে যোগদান করবেন।

জামিআ ইউনুছিয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বার্ষিক সম্মেলনে বাদ মাগরিব যোগদান করার কথা রয়েছে। রাতেই আবার ঢাকায় ফিরবেন তিনি।

৭ ফেব্রুয়ারি রবিবার শুধু একটি মাত্র অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন। ফজরের নামাজের সঙ্গে সঙ্গে জামিআ আশরাফিয়া নূরের চালা, বারিধারায় আলোচনা পেশ করবেন তিনি। পরে সকাল দশটায় বিমানে দিল্লীর উদ্দেশে বাংলাদেশ ত্যাগ করবেন।