রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়ানো ঈমানী দায়িত্ব : আল্লামা কাসেমী

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা নূর হোছাইন কাসেমী বলেছেন, বেশ কিছুদিন থেকে মায়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর অমানুষিক নির্যাতন চলছে। জাতিসংঘ, ওআইসিসহ আন্তর্যাতিক সংস্থাগুলো এখন পর্যন্ত সমাধানধর্মী কোন প্রদক্ষেপ নিতে পারেনি। আমাদের দেশের সরকারও নিরবতার ভূমিকা পালন করছে। রোহিঙ্গা মুসলমানরা আমাদের ভাই। এই কঠিন সময়ে তাদের পাশে দাঁড়ানো আমাদের ঈমানী দায়িত্ব।

তিনি জমিয়ত নেতৃবৃন্দসহ দেশের জনগণকে নির্যাতিত রোহিঙ্গা মুসলমানদের পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানান। বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের খাবার সরবরাহসহ তাদের যথাযথ হেফাজত করতে সরকার ও জনগণকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

আজ বাদ আসর জমিয়তের পল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ মৌলভী বাজার জেলা কমিটি ঘোষণা উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক সভায় প্রধান অথিতির বক্তব্যে আল্লামা নূর হোছাইন কাসেমী এসব কথা বলেন ।

জমিয়তের সহ-সভাপতি ও আহবায়ক কমিটির প্রধান মাওলানা জহিরুল হক ভুইঁয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সহ সভাপতি মাওলানা আব্দুর রব ইউসুফী, যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরীর সভাপতি মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ও ঢাকা মহানগরীর সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মতিউর রহমান গাজীপুরী ও প্রচার সম্পাদক মাওলানা জয়নুল আবেদীন।

সমাবেশে কেন্দ্রীয় জমিয়তের পক্ষ থেকে মাওলানা আব্দুল মালিক রুপষপুরীকে সভাপতি, মাওলানা খায়রুল ইসলামকে সাধারণ সম্পাদক ও মাওলানা আব্দুল আজিজকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ৬১ সদস্য বিশিষ্ট মৌলভী বাজার জেলা জমিয়তের কমিটি ঘোষণা করা হয়।