মাদরাসা ছাত্রী অপহরণ !

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

 

বগুড়ার গাবতলীতে মাদ্রসা পড়ুয়া ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী অপহরণের ১০দিন পেরিয়ে গেলেও অধ্যাবধি ছাত্রীটির সন্ধান বের করতে পারেনি থানা পুলিশ। গত বছরের ২৭ডিসেম্বর পৌরসভাধীন খলিশাকুড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অপহৃত ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ওইদিনই থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

একাধিকসূত্র জানায়, পৌরসভাধীন খলিশাকুড়া গ্রামের শফিকুল ইসলামের মেয়ে হামিদপুর মাদ্রাসার ৫ম শ্রেনীর ছাত্রী। গত বছরের ২৭ডিসেম্বর সকালে ওই ছাত্রী মাদ্রাসা থেকে বাড়ী ফিরছিল। পথিমধ্যে পূর্বে ওঁত পেতে থাকা অপরহরণকারীরা জোরপূর্বক সিএনজিযোগে ছাত্রীটিকে অপহরণ করে।

এ ঘটনায় অপহৃত ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে পৌর সদরের পশ্চিমপাড়া গ্রামের সম্রাট (২২), তার বাবা আবু তালেব ও মা শান্তনাকে অভিযুক্ত করে ওইদিনই থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এদিকে অপহরণের ১০দিন পেরিয়ে গেলেও পুলিশ আজ পর্যন্ত অপহৃতের কোন সন্ধান বের করতে পারেননি বলে ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করেন। এ ব্যাপারে অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মাহবুব এর সঙ্গে কথা বললে তিনি বলেন, সম্রাট ও শরীফা প্রেমের টানে উধাও হয়েছে। আমরা নাবালিকা ওই মেয়েটিকে উদ্ধারের চেষ্টা করছি।

তিনি এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, অভিযুক্ত সম্রাটের বাবা-মা এতোদিন তাদের বাড়ীতেই ছিল। তারা মেয়েটিকে ফেরত দিবে বলে অঙ্গীকার করে শেষ পর্যন্ত তারাও বাড়ী ছেড়ে পালিয়েছে।