প্রাথমিক থেকে সর্বোচ্চ শিক্ষার পাঠ্যসূচীতে ইসলামী শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক করতে হবে

পাঠ্যসূচীতে ইসলাম বিরোধী বিষয়গুলোকে বাদ দেয়ায় সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন দেশের অন্যতম প্রধান কওমি মহিলা মাদরাসা জামিয়া ইসলামিয়া আল হুদার (হাটহাজারী মহিলা মাদরাসা) প্রিন্সিপ্যাল ও হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতা মাওলানা মীর ইদ্‌রীস।

তিনি বলেন, আমরা সরকারকে ধন্যবাদ যানাই, তারা দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিমদের দাবির প্রেক্ষিতে পাঠ্যসূচীতে ইসলাম বিরোধী অনেক কিছুই বাদ দিয়েছে।

মাওলানা মীর ইদ্‌রীস বলেন, বাংলাদেশের ৯০ ভাগ মানুষ মুসলমান, তাই স্বাভাবিক ভাবেই এ দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা হবে মুসলমাদের ঈমান-আকিদার সাথে মিল রেখে। কিন্তু আমরা দেখলাম সরকারের শিক্ষা বিভাগে ঘাপটি মেরে থাকা ইসলাম বিরোধী একটা শক্তি দেশের সাধারণ শিক্ষার পাঠ্যবইয়ে ইচ্ছাকৃত ভাবে এমন কিছু বিষয় যোগ করার চেষ্টা করেছিলো, যা মুসলমানদের ঈমান-আকিদার সাথে সরাসরি সাংঘর্ষিক।

পরবর্তীতে দেশের আলেম উলামা ও সচেতন জনগণের প্রতীবাদকে গুরুত্ব দিয়ে সরকার কিছুটা হলেও ইসলাম বিরোধী বিষয়গুলোকে বাদ দিয়েছে। এজন্য আমরা সরকারকে ধন্যবাদ যানাই।

তিনি বলেন, আমরা দাবি জানাবো প্রথমিক থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ শিক্ষার পাঠ্যসূচীতে ইসলামী শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক করে দেয়ার।