মূর্তি না সরালে কঠোর আন্দোলনে যেতে বাধ্য হবো: চরমোনাই পীর

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

ইসলামী আন্দোলনের আমীর মুফতি সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম বলেছেন, মুসলিম প্রধান বাংলাদেশের সর্বোচ্চ বিচারালয়ে গ্রিক দেবীর মূর্তি স্থাপন করা হয়েছে। ইসলামে মূর্তির কোন স্থান নেই। ইসলাম এসেছে মূর্তি ধ্বংসের জন্যে। বর্তমান সরকারের আমলে বিচারালয়ে, রাস্তার মোড়ে মোড়ে মূর্তি স্থাপন করা হচ্ছে। এসব মূর্তি স্থাপন করে নিজেদের মুসলমান দাবি করা যায় না। অবিলম্বে এসব মুর্তি অপসারণ করতে হবে। অন্যথায়, দেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য ও আমজনতার ঈমান-মূল্যবোধ রক্ষায় আমরা কঠোর আন্দোলনে যেতে বাধ্য হবো।

আজ শুক্রবার রাজধানীর গুলিস্তান কাজী বশির মিলনায়নে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন কর্তৃক আয়োজিত কেন্দ্রীয় সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

চরমোনাই পীর বলেন, বিজাতীয় অপসংস্কৃতির মাধ্যমে দেশের যুব সমাজকে ধ্বংসের দিকে ধাবিত করা হচ্ছে। ভারতীয় টিভি চ্যানেলের আগ্রাসনে আমাদের সমাজ ও পরিবারের ভ্রাতৃত্বের বন্ধন আজ হুমকির মুখে। এ সকল চ্যানেল বন্ধ করা সচেতন জনগণের প্রাণের দাবিতে পরিণত হয়েছে। মঙ্গল শোভাযাত্রার নামে মুর্তির সংস্কৃতিকে বাঙালি সংস্কৃতি বলে চালিয়ে দেয়া হচ্ছে। যা বাঙালি মুসলমানরা সহ্য করবে না। এ সকল অপসাংস্কৃতিক কার্যক্রম বন্ধ করতে হবে।