জামায়াত সন্দেহে আটক ২৮ নারী ২ দিনের রিমান্ডে

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

জামায়াতে ইসলামীর কর্মী সন্দেহে আটক ২৮ নারীকে আদালত দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন  । গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানা এলাকায় একটি ফ্ল্যাট থেকে তাঁদের আটক করা হয়।

আজ শুক্রবার ঢাকার মহানগর হাকিমের আদালতে ২৮ নারীকে হাজির করে মোহাম্মদপুর থানার পুলিশ। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে মহানগর হাকিম দেলোয়ার হোসেন ওই নারীদের দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গতকাল দুপুরে মোহাম্মদপুর থানার তাজমহল রোডের ১১/৭ নম্বর বাড়ির দ্বিতীয় তলার ফ্ল্যাট থেকে ওই নারীদের গ্রেপ্তার করা হয়।

২৮ নারীর বিরুদ্ধে গতকাল রাতেই মোহাম্মদপুর থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করা হয়।

আজ সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ওই নারীদের বিষয়ে মোহাম্মদপুর থানায় এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

এতে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) বিপ্লব কুমার সরকার জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাজমহল রোডে ওই বাড়িতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ২৮ জনকে আটক করে।

তিনি জানান, গ্রেপ্তার হওয়া নারীদের সবাই উচ্চশিক্ষিত। তাঁদের মধ্যে কেউ কেউ বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষক, ডাক্তারসহ বিভিন্ন পেশার সঙ্গে জড়িত। তাঁদের মধ্যে অনেক নারী দণ্ডপ্রাপ্ত যুদ্ধাপরাধী পরিবারের সদস্য বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জানা গেছে। জিজ্ঞাসাবাদে তাঁরা অনেকেই তাঁদের প্রকৃত পরিচয় দিচ্ছেন না। তাঁদের আদালতে নেওয়া হচ্ছে; সাতদিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।

মামলার এজাহারে দেওয়া নামগুলো হচ্ছে শাহনাজ বেগম (৫৬), নাইমা আক্তার (৫৫), উম্মে খালেদা (৪০), জোহরা বেগম (৩৫), সৈয়দা শাহীনা আক্তার (৪০), উম্মে কুলসুম (৪২), জেসমিন খান (৪৩), খোদেজা আক্তার (৩২), সালমা হক (৪৫), সাকিয়া তাসলিম (৪৭), সেলিমা সুলতানা সুইটি (৪৮), হাফসা (৫৫), আকলিমা ফেরদৌস (৩৭), রোকসানা বেগম (৫১), আফসানা মিমি (২৫), শরীফা আক্তার (৫৩), রুবিনা আক্তার (৩৮), তাসলিমা (৫২), আসমা খাতুন (৩৫), সুফিয়া (৪১), আনোয়ারা বেগম (৪৬), ইয়াসমিন আক্তার (৪১), সাদিয়া (৪৫), ফাতেমা বেগম (৫১), উম্মে আতিয়া (৪৬), রুমা আক্তার (৩২), রাজিয়া আক্তার (৪২) ও রহিমা খাতুন (৩০)।