মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার পদ শূন্য: সংকটের আশংকা

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

ট্রাম্প

মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার শূন্য পদে লোক নিয়োগ দেয়ার জন্য প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এখনো প্রার্থী খুঁজছেন। সরকার গঠনের অল্প কিছুদিনের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ এ পদে শূন্যতা সৃষ্টি হলেও এখনো তা পূরণ করা সম্ভব হয় নি। এ অবস্থায় আশংকা করা হচ্ছে- মার্কিন নিরাপত্তা ইস্যু কিংবা পররাষ্ট্র নীতিতে কোনো সংকট দেখা দিলে হোয়াইট হাউজ তখন জটিল অবস্থায় পড়তে পারে।

আমেরিকায় নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের বিষয় নিয়ে বিতর্কিত টেলিফোন আলাপ এবং এ বিষয়ে মিথ্যা তথ্য দেয়ার দায়ে গত সোমবার পদত্যাগ করতে বাধ্য হন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিন। এরপর প্রায় এক সপ্তাহ পার হলেও এ পদে কাউকে নিয়োগ দিতে পারেন নি ট্রাম্প। আমেরিকার অবসরপ্রাপ্ত ভাইস অ্যাডমিরাল রবার্ট হাওয়ার্ডকে এ পদের জন্য প্রস্তাব দেয়া হলেও তিনি তা গ্রহণ করতে অস্বীকার করেন। তিনি বলেছেন, তাকে লোক নিয়োগ এবং অন্যান্য কাজের জন্য পর্যাপ্ত স্বাধীনতা দিতে চায় নি ট্রাম্প প্রশাসন।

পরবর্তীতে সাবেক জেনারেল এবং সিআইএ’র প্রধান ডেভিড পেট্রাউসকে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার পদে নিয়োগ দেয়ার চিন্তা করা হচ্ছিল। কিন্তু তিনিও একই কথা বলে এ পদ গ্রহণ করতে চান নি। চলতি সপ্তাহে এ পদে লোক নিয়োগ দেয়ার জন্য কয়েকজনের সাক্ষাৎকার নেবেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। পদটির জন্য এখন তিনজনকে বিবেচেনা করা হচ্ছে। তারা হলেন, বর্তমান ভারপ্রাপ্ত জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা কিথ কেলোগ, লেফটেন্যান্ট জেনারেল এইচ আর ম্যাকমাস্টার এবং জাতিসংঘে নিযুক্ত সাবেক মার্কিন রাষ্ট্রদূত জন বোল্টন।

পার্সটুডে