গ্রীক মূর্তি নয়, ন্যায় বিচারের প্রতীক আল-কোরআন: ইসলামী ঐক্যজোট

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

সুুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে মূর্তি অপসারণের দাবীতে আগামী বুধবার বিকাল ৪টায় বায়তুল মোকাররম উত্তর গেটে বিক্ষোভ মিছিল করবে ইসলামী ঐক্যজোট। আজ বাদ আসর লালবাগস্থ কার্যালয়ে জোটের মজলিসে শূরার এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

সভায় ইসলামী ঐক্যজোট নেতৃবৃন্দ বলেন, যে কোন ধরণের মূর্তি স্থাপন ও সংরক্ষণ ইসলামী সভ্যতা সংস্কৃতি ও মুসলমানদের ঈমান আকিদা পরিপন্থী। মসজিদের নগরী ঢাকায় সর্বোচ্চ আদালতের সামনে মূর্তি স্থাপনকে যারা ন্যায় বিচারের প্রতীক বলছেন তারা অন্ধকারের গলিতে বাস করছেন। নেতৃবৃন্দ বলেন, গ্রীক মূর্তি নয়, ন্যায় বিচারের প্রতীক হলো আল-কোরআন আর মূর্তি হলো গজব ও ধ্বংসের প্রতীক। এই জন্যই মহানবী (সাঃ) মক্কা বিজয়ের পর কাবাগৃহ থেকে সর্বপ্রথম মূর্তি অপসারণ করেছেন। ইতিহাস স্বাক্ষী- ইতোপূর্বে যারা মূর্তির পেছনে পড়েছে এবং মূর্তির ভালবাসায় লিপ্ত হয়েছে তারা সবাই নির্মমভাবে ধ্বংস হয়েছে।

নেতৃবৃন্দ সরকারের উদ্দেশ্যে বলেন, সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলমানদের চেতনা ও সংস্কৃতি বিরোধী কোন কাজ সুফল বয়ে আনবে না। এতে গোটা কয়েক নাস্তিক খুশি হতে পারে। কিন্তু বৃহত্তম মুসলিম জনগোষ্ঠির হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হবে। ঐক্যজোট নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে সুপ্রিম কোর্টের সামনে থেকে মূর্তি অপসারণ করার জন্য সরকারের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান।

ইসলামী ঐক্যজোটের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মজলিসে শূরার বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, জোটের মহাসচিব মুফতী ফয়জুল্লাহ, ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুল হামিদ পীর সাহেব মধুপুর, মাওলানা জসিমউদ্দিন, অধ্যাপক মাওলানা এহতেশাম সারওয়ার, যুগ্ম মহাসচিব মুফতী তৈয়্যব হোসাইন, মাওলানা আবুল কাশেম, মাওলানা আহলুল্লাহ ওয়াছেল, সাংগঠনিক সচিব মুফতী সাখাওয়াত হোসাইন, সহকারী মহাসচিব মাওলানা আলতাফ হোসাইন, মাওলানা একেএম আশরাফুল হক, দফতর সম্পাদক মাওলানা রিয়াজতুল্লাহ, ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা আনসারুল হক ইমরান প্রমুখ।