ডন পত্রিকার প্রথম সম্পাদক আলতাফ হুসেইন

জহিরুল চৌধুরী

আলতাফ হুসেইনআলতাফ হুসেইন নামে একজন সাংবাদিক জন্মেছিলেন সিলেটের মাটিতে ১৯০০ সালের ২০ জানুয়ারি, এবং মারা যান ১৯৬৮ সালের ১৫ মে। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি ইংরেজীতে ব্যাচেলর করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে একই বিষয়ে এমএ পাশ করেন। অতঃপর কলকাতা মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনে পাবলিক ইনফরমেশন অফিসার হিসেবে যোগ দেন ১৯৪২ সালে। কয়েক বছর পর তিনি ভারত সরকারের তথ্য মন্ত্রণালয়ে তথ্য উপদেষ্টা পদে যোগ দেন। এসময় তিনি কলকাতার স্টেটসম্যান পত্রিকার পাক্ষিক আয়োজনে “আইন-উল মূলক” ছদ্মনামে লিখতে থাকেন- “Through the Muslim Eyes” শিরোনামে ভারত ভাগের যৌক্তিকতা সম্পর্কে। এক সময় চাকরি ছেড়ে দিয়ে নিয়মিত লিখতে থাকেন স্টেটসম্যান ও কলকাতা স্টার পত্রিকায়। খুব সহজেই নজর কাড়েন মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ’র। জিন্নাহ দেখা করেন আলতাফ হুসেইনের সঙ্গে তাঁর বাড়ি মুম্বাই শহরে। জিন্নাহ তাঁকে নিজের প্রতিষ্ঠিত (১৯৪৫ সালে) ডন পত্রিকার প্রধান সম্পাদক পদে যোগ দেয়ার অনুরোধ জানালে তিনি তা গ্রহণ করেন।

আলতাফ হুসেইন ছিলেন ডন (The Dawn) পত্রিকার প্রথম সম্পাদক। শুধু তাই নয়, তিনি ছিলেন জিন্নাহ’র ঘনিষ্ঠ উপদেষ্টা। ১৯৪৭-এ ভারত ভাগ হলে ডন পত্রিকার অফিস স্থানান্তরিত হয় মুম্বাই থেকে করাচিতে। ১৯৬৫ সাল পর্যন্ত তিনি ডনের প্রধান সম্পাদক হিসেবে কাজ করেন। এ সময় তিনি “পূর্ব পাকিস্তানের” ভাষা আন্দোলনসহ স্বায়ত্ত শাসনের দাবির সঙ্গেও একাত্মতা ঘোষণা করেন। সাংবাদিকতার পাশাপাশি করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংবাদিকতা বিভাগ খোলা ও শিক্ষকতায় নিজেকে নিয়োজিত করেন। আইয়ুব খান ক্ষমতা দখল করে তাঁকে মন্ত্রিত্বের অনুরোধ জানালে সবাইকে অবাক করে তিনি শিল্প মন্ত্রীর পদে যোগ দেন। আবার পদত্যাগও করেন মৃত্যুর অল্প কিছুদিন আগে। তাঁকে পাকিস্তানে রাস্ট্রীয় খেতাবে ভূষিত করা হয় জীবদ্দশাতেই। করাচি’র একটি প্রধান সড়ক, ডন পত্রিকা অফিসের রাস্তাটি এখনো তাঁর নামে অঙ্কিত- “আলতাফ হুসেইন রোড”।