আসছে ‘নগর অ্যাপস’: কারাগারে থাকায় অনেক কিছুই বাস্তবায়ন সম্ভব হয়নি, বললেন আরিফ

সিলেট নগরবাসীর সেবাপ্রাপ্তি আরও সহজ করতে অনলাইনভিত্তিক সেবা কার্যক্রম ‘নগর অ্যাপস’ চালু করছে সিলেট সিটি কর্পোরেশন (সিসিক)।

এর ফলে ঘরে বসেই নগরভবনে যেকোনো সেবার আবেদন ও অভিযোগ জানাতে পারবেন নাগরিকরা। এই অ্যাপস ব্যবহার করে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পরিশোধ করা যাবে সিটি কর্পোরশেনের বিভিন্ন বিলও।

নগর অ্যাপস নির্মানের কাজ এখন শেষ পর্যায়ে। যাচাই বাছাই শেষে এটি নগরবাসীর জন্য উন্মুক্ত করা হবে।

বৃহস্পতিবার বাজেট বক্তৃতায় নগর অ্যাপস চালুর কথা জানান মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী সিলেট সিটি করপোরশেনরে ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের জন্য ৪৯৩ কোটি ১৫ লক্ষ ৪৩ হাজার টাকার বাজেট ঘোষণা করেন।

মেয়র বলেন, সিটি কর্পোরেশনের নতুন অ্যাপস-‘নগর অ্যাপস’ শীঘ্রই চালু করা হচ্ছে। এর মাধ্যমে নাগরিকবৃন্দ ঘরে বসেই সকল সেবার আবেদন করতে পারবেন। ট্রেড সাইসেন্স সংক্রান্ত নোটিফিকেশন গ্রাহকদের মোবাইলে এসএমএস’র মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হয়। মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে ফি পরিশোধের সেবা রয়েছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের ‘এ টু আই’ প্রকল্পের সহায়তায় সকল ওয়ার্ডে সিটি ডিজিটাল সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে। জন্ম মৃত্যু নিবন্ধন, পাসপোর্ট আবেদন, বি আর টি এর লাইসেন্স আবেদন ইত্যাদি সেবা এই অ্যাপসের মাধ্যমে নেওয়া যাবে।

আরিফ বলেন, আমরা চাই যুগোপযোগী পদ্ধতিতে নাগরিকদের সেবা নিশ্চিত হোক। সেবা সমূহকে অন লাইনে নিয়ে আসার উদ্যোগ আমরা গ্রহণ করেছি। অন লাইনে বিল আদান প্রদান এবং পরিশোধের ব্যবস্থাও চালু হবে শীঘ্রই।

আরিফুল হক চৌধুরী আরও বলেন, সিটি কর্পোরশনে একটি ডিজিটাল তথ্য সেবাকেন্দ্র স্থাপন, সিটির তরুণ প্রজন্মের জন্য ফ্রি পাবলিক ওয়াইফাই জোন স্থাপন সহ বেশ কিছু কাজ শুরু করেছিলাম। কিন্তু আমার বন্দীদশার জন্য তা বাস্তবায়ন সম্ভব হয়নি। তবে ইতোমধ্যে কিছু অনলাইন সেবা চালু হয়েছে।