‘অবৈধ সংসদ’ ভেঙে দিয়ে প্রধান বিচারপতি আরেকটি উপকার করতে পারেন: হাফিজ

মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ (ফাইল ফটো)

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করে প্রধান বিচারপতি জনগণের একটি উপকার করেছেন। বর্তমান অবৈধ সংসদ ভেঙে দেয়া উচিত। এমন কোনো রায় দিয়ে আরও একটি উপকার করতে পারেন তিনি।

শুক্রবার দুপুরে ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন মিলনায়তনে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি আয়োজিত ‘ষোড়শ সংশোধনী বাতিল ও গণতান্ত্রিক যাত্রা’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কোনো রাজনৈতিক দলের নয়। অতীতে এ দেশের প্রতিটি সংসদ নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েন ছিল। শুধু মাত্র ছিল না ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির অবৈধ নির্বাচনে। অতীতের সব সংসদ নির্বাচনের মতো আগামী জাতীয় নির্বাচনেও সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, নির্বাচনে সেনাবাহিনী না থাকলে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মতো আবারও দুর্বৃত্তরা লাঠি, রামদা হাতে ভোট কেন্দ্রে সাধারণ মানুষের ওপর হামলা করবে। তাই আগামী নির্বাচনের ২ মাস আগেই সেনা মোতায়েন করতে হবে।

নির্বাচন কমিশনের বক্তব্যের সমালোচনা করে মেজর হাফিজ বলেন, দেশে এখন একটি নির্বাচন কমিশন আছে যাকে অত্যন্ত চাতুরতার সঙ্গে ষড়যন্ত্র করে গঠন করা হয়েছে। এখন তারা যে বক্তব্য দিচ্ছে, তার মাধ্যমে তাদের আসল চরিত্র ফুটে উঠছে।

বিচার বিভাগ ও প্রধান বিচারপতিকে নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতাদের বিরূপ মন্তব্যেরও কড়া সমালোচনা করেন মেজর হাফিজ। তিনি বলেন, এ সরকার বিচারপতি অপসারণের ভার সংসদের হাতে নেয়ার জন্য উঠেপড়ে লেগেছে।