রোহিঙ্গা গণহত্যার প্রতিবাদে আগামীকাল মায়ানমার দূতাবাস ঘেরাও করবে হেফাজত

মজলুম রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর নৃশংস গণহত্যা ও বর্বর নির্যাতনের প্রতিবাদে আগামীকাল মায়ানমার দূতাবাস ঘেরাও করবে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ।

হেফাজত কর্তৃক পূর্ব ঘোষিত ১৮ সেপ্টেম্বর’১৭ সোমবার মায়ানমার দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচী সফলের লক্ষ্যে হেফাজতে ইসলাম ঢাকা মহানগর ব্যাপক উদ্যোগ গ্রহণ করে।
সে লক্ষ্যে ঢাকার বিভিন্ন স্পটে ব্যাপক গনসংযোগ ও লিফলেট বিতরণ কর্মসূচী পালন করা হয়।

এতে আপামর জনসাধারণের মাঝে ব্যাপক সাড়া পড়েছে। ব্যাপক সাড়া জাগানো এই গনসংযোগ কর্মসূচী পালনকালে নেতৃবৃন্দ বলেন, আরাকানের রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর বর্বর হামলা বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত এবং তাদের নাগরিক ও মানবিক অধিকার প্রতিষ্ঠা না হওয়া পর্যন্ত আল্লামা আহমদ শফীর নেতৃত্বে দেশের আপামর তৌহিদী জনতা তাদের কর্মসূচী অব্যাহত রাখবে। নেতৃবৃন্দ দেশের সর্বস্তরের তৌহিদী জনতাকে উক্ত দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচীতে সকাল ১১টার পূর্বে বাইতুল মুকাররম উত্তর গেইটে হাজির হয়ে স্বত:স্ফুর্তভাবে অংশগ্রহণের উদাত্ত আহবান জানান।

উল্লেখ্য, ঘেরাও কর্মসূচী পালন শেষে ঢাকা মহানগর হেফাজত নেতৃবৃন্দ জাতিসংঘ এবং ওআইসি বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করবে।

উক্ত কর্মসূচীতে উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা জুনাইদ আল হাবীব, মাও. জহিরুল হক ভূইয়া, মাও. মাহফুজুল হক, মাও. আব্দুর রব ইউসুফী, মাও. মুজিবুর রহমান পেশওয়ারী, মাও. হাবীবুল্লাহ মিয়াজী, হাকিম আব্দুল করীম, মাও. ফজলুল করীম কাসেমী, মাও. জাফরুল্লাহ খান, মাও. মুজিবুর রহমান হামিদী, মুফতী আব্দুল মালেক, মুফতী মুনীর হোছাইন কাসেমী, মাও. আহমদ আলী কাসেমী, শেখ গোলাম আসগর, মাও. এবিএম শরিফুল্লাহ, মাও. জয়নুল আবেদীন, মাও. আজীজুর রহমান হেলাল ও মুফতী নাসীর উদ্দীন খান প্রমূখ।