জিহাদ বিষয় পূর্ণ ধারণা না থাকলে শিক্ষার্থীরা সন্ত্রাসবাদের দিকে ঝুঁকবে : মুসা বিন ইজহার

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

প্রধান বিচারপতির পদত্যাগের বিষয়ে বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির মহাসচিব আবদুল মাজেদ আতহারী বলেছেন, জোর করে প্রধানবিচারপতিকে পদত্যাগ করানোর মাধ্যমে সরকার বিচার বিভাগকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছে। তিনি বলেন, প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহার পদত্যাগের বিষয়টা বাংলাদেশের ইতিহাসের একটি কালো অধ্যায় হয়ে থাকবে।

আজ পার্টির পল্টনস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর কার্যনির্বাহী পরিষদের সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

সরকারী মাদরাসার পাঠ্যপুস্তক থেকে জিহাদ অধ্যায় বাদ দেয়ার তীব্র নিন্দা জানান নেজামে ইসলাম পার্টির যুগ্ম-মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর সভাপতি মাওলানা মুসা বিন ইজহার।

মাওলানা মুসা বিন ইজহার বলেন, জিহাদ ইসলামের গুরুত্বপূর্ণ বিধান। এ বিধান মহান আল্লাহর পক্ষ থেকে তাঁর বান্দাদের ওপর স্পষ্ট নির্দেশনা। আল্লাহ তাঁর পবিত্র কালামে অসংখ্য বার জেহাদের কথা বলেছেন। কেউ জিহাদকে অস্বীকার করলে তাঁর ঈমান থাকবে না।

তিনি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে সরকারী মাদরাসার পাঠ্যপুস্তক থেকে জিহাদ অধ্যায় বাদ দেয়া হয়েছে, যা অত্যন্ত নিন্দনীয় ও অগ্রহণযোগ্য। তিনি বলেন, এ পদক্ষেপ সম্পূর্ণ অপরিপক্ব। জিহাদ বিষয় শিক্ষার্থীদের পাঠদান থেকে বিরত থাকলে তারা জিহাদ ও সন্ত্রাসবাদের পার্থক্য করতে ভুলে যাবে। আমরা মনে করি তরুণ প্রজন্মকে সন্ত্রাসবাদ ও তথাকথিত জঙ্গিবাদ থেকে বিরত রাখতে হলে ইসলামের মৌলিক বিধান জেহাদকে পরিপূর্ণ ভাবে পাঠ্যপুস্তকের মাধ্যমে তুলে ধরা প্রয়োজন। এতে করে তারা জানতে পারবে, জেহাদ আর সন্ত্রাসবাদ এক নয়। সন্ত্রাসবাদকে দমন করতেই জেহাদের প্রয়োজন।

তিনি সরকারকে এমন পদক্ষেপ থেকে বিরত থাকার জন্য পরামর্শ দিয়ে বলেন, আমাদের  ধারণা জেহাদ বিষয় পূর্ণ থাকলে শিক্ষার্থীরা জেহাদের অপব্যাখ্যার দিকে ঝুঁকবে, এবং তা হবে দেশ ও জাতীর জন্য অত্যন্ত বিপদজনক।

সভায় অন্যান্যরে মধ্যে বক্তব্য রাখনে র্পাটরি মহানগর সহ সভাপতি মুফতি ইকরামুল হক, মাওলানা মুস্তাফজিুর রহমান মাহমুদী, র্পাটরি মহানগর সক্রেটোরি মুফতি দলিাওয়ার হুসাইন মাইজী, র্পাটরি মহানগর সংগঠন সচবি মাওলানা গোলাম কবিরয়িা, মহানগর নতো মাওলানা হাববিুর রহমান, বশিষ্টি মুহাদ্দসি মুফতী আবু নাঈম, মাওলানা আশকিুর রহমান, মাওলানা ইয়াকুব, মাওলানা রায়হান, হাফজে ক্বারী তালহা তসলিম উদ্দিন প্রমুখ।