আসামের মুসলমানদের ব্যাপারে আগাম কুটনৈতিক তৎপরতা চালানো উচিত : জমিয়ত

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

শায়খ আব্দুল মোমিন ইমামবাড়ি ও আল্লামা নুর হুসাইন কাসেমী

ভারতের আসাম প্রদেশের মুসলমানদের ব্যাপারে বাংলাদেশ সরকারকে আগাম কুটনৈতিক তৎপরতা চালানোর জন্য আহ্বান জানিয়েছেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সভাপতি শায়খ আব্দুল মোমিন ইমামবাড়ি ও মহাসচিব আল্লামা নূর হোছাইন কাসেমী।

আজ এক যৌথ বিবৃতিতে তারা বলেন, ভারতের আসাম প্রদেশে বসবাসকারী মুসলমানরা ভারতের নাগরিক। তারা প্রায় চার শতাব্দী থেকে ভারতের নাগরিক হিসেবে বসবাস করে আসছে। আসামের মুসলমানদেরকে ভারত ছাড়া করতে ভারতের বর্তমান সরকার সম্প্রতি চক্রান্তের জাল বিস্তার করতে শুরু করেছে। ভারত সরকার মায়ানমারের রোহিঙ্গর মুসলমানদের মত আসামের মুসলমানদের নাগরিকত্ব অস্বিকার করার পটভুমি তৈরী করেছে।

তারা হিন্দুদেরকে অবাধ নাগরিকত্ব প্রদান করছে। যে সব হিন্দুরা ২০১৪ সালের পূর্বে আসামে আগমন করেছে তাদেরকে নাগরিক হিসাবে স্বীকৃতি দিচ্ছে, অথচ চারশত বছর থেকে যে সব মুলমানরা আসামে বসবাস করে আসছে তাদেরকে বাংলাদেশেী বলে তাদের নাগরিকত্ব হরণ করা হবে তা হতে পারেনা। আসামের মুসলমানদের ভোটারাধিকার হরণ করার ষড়যন্ত্রন চলছে। যদি আসামের মুসলমানদেরকে বাংলাদেশী বলে আসাম থেকে বহিস্কার করা হয় তা হলে তার পরিনতি হবে ভয়াবহ। যা ভারতকে খান খান করে দিতে পারে।

আসামের মুসলমাদের ব্যাপারে ভারতের ষড়যন্ত্র সম্পর্কে যথা সময়ে আন্তর্জাতিক বিশ্বের দৃষ্টি আকর্ষনের উদ্যোগ গ্রহণ করা উচিৎ বলে জমিয়ত নেতারা মনে করেন।