কাওরান বাজারের হাসিনা মার্কেটে ভয়াবহ আগুন; নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ২৬টি ইউনিট

আগুনরাজধানীর কাওরান বাজারের জনতা টাওয়ারের পেছনে হাসিনা মার্কেটে আগুন লেগেছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ২৬টি ইউনিট কাজ করছে। আগুন আশপাশের দোকানগুলোতেও দ্রুতই ছড়িয়ে পড়ছে। এই আগুন পার্শ্ববর্তী রেল লাইনের পাশে বস্তিতেও ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করছেন অনেকেই।

রোববার (১ মে) সন্ধ্যায় ঝড়ের ঠিক পরেই সোয়া ৭টার দিকে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের কর্মকর্তা এনায়েত উল্লাহ।

হোটেলে রান্নার কাজে ব্যবহৃত গ্যাসের লাইন থেকেই এই আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে ধারণা প্রত্যক্ষদর্শীদের।

ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা জানিয়েছেন, ভেতরের দিকে সবগুলো দোকানই পুড়ে গেছে। এখনো আগুনের তীব্রতা রয়েছে। ক্ষতির পরিমাণ ২০ কোটি ছাড়াবে বলে অনুমান করা হচ্ছে। বাতাসের কারণে আগুন আরো বেপরোয়া হয়ে গেছে।

দমকল বাহিনীর গাড়িতে পর্যাপ্ত পানি ছিল না বলে অভিযোগ করেছেন ব্যবসায়ীরা। তারা বলছেন, পানির সঙ্কটের কারণেই আগুন এতটা ছড়িয়ে পড়েছে।

এদিকে ঘটনাস্থলের আশেপাশে ভিড় করছেন ব্যবসায়ীসহ হাজার হাজার মানুষ। তাদের সামলাতেও বেগ পেতে হচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের।

ব্যবসায়ীদের কয়েকজন জানিয়েছেন, মার্কেটটি কাঁচামালের আড়ত। এখানে সর্বমোট ৩৯৬টি দোকানের বেশিরভাগগুলোতেই শুকনো মালামাল রয়েছে। আগুনে ব্যবসায়ীদের নানারকম মালামালের ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি হচ্ছে।

নুরুল ইসলাম নামে এক ব্যবসায়ী বলেন, ‘চোখের সামনেই অাগুন লাগছে। অামরা জীবনডা লইয়া কোনো রকম বাইর হইছি। কিছুই করতে পারলাম না। একেবারে পথে বইসা গেলাম।’ এসময় আসেপাশে অনেক ব্যবসায়ীকে কান্নাকাটি ও বিলাপ করতে দেখা গেছে।