মাওলানা শামসুল আলমের ইন্তেকালে আল্লামা শফী ও আল্লামা বাবুনগরীর শোক প্রকাশ

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | ডেস্ক রিপোর্ট 


হাটহাজারী মাদরাসার স্বনামধন্য শিক্ষিক মাওলানা শামসুল আলম সাহেব আজ ৬ জানুয়ারী সকাল ১০ টায় হাটাহাজারী পৌরসভাস্থ নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। তার ইন্তেকালে জামিয়া প্রধান, আমীরে হেফাজত শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী ও হেফাজতে ইসলাম মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী গভীর শোক প্রকাশ করেছেন এবং শোকসন্তপ পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

আজ ইশার নামাযের পর হাটহাজারী মাদরাসা প্রাঙ্গনে মরহুমের নামাযে জানাযা অনুষ্ঠিত হবে।

মাওলানা শামসুল আলম সাহেব চট্টগ্রাম জেলার অন্তর্গত হাটহাজারী থানার আলমপুর গ্রামে ১২/৮/১৯৪৩ সনে এক সম্ভ্রান্ত আলেম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি দারুল উলূম হাটহাজারী মাদরাসার অন্যতম মুহাদ্দিস আল্লামা নাদিরুজ্জামান (রহ.) এর সুযোগ্য সন্তান।

তিনি প্রাথমিক শিক্ষা লাভের জন্যে দারুল উলূম হাটহাজারী মাদরাসার হিফয বিভাগে ভর্তি হয়ে মাত্র ৯ মাসে কুরআনুল কারীমের হিফয সম্পন্ন করেন। তুখোড় মেধার অধিকারী এই মনীষী প্রাথমিক, উচ্চ মাধ্যমিক থেকে দাওরায়ে হাদীছ পর্যন্ত পড়ালেখা দারুল উলূম হাটহাজারী থেকে সমাপ্ত করেন। ১৯৬০ সালে হাটহাজারী থেকে দাওরায়ে হাদীছ সমাপ্ত করে উচ্চ শিক্ষা অর্জনের লক্ষ্যে পাকিস্তান জামিয়া আশরাফিয়া লাহুরে আল্লামা ইদরীস কান্দলভীর নিকট পুনরায় বুখারীর দরস নেন। ১৯৬১ সনে সনদ নিয়ে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন করেন।

দেশে ফিরে সর্বপ্রথম নওগাঁ জেলার অন্তর্গত পোরশা দারুল হেদায়া মাদরাসায় সিনিয়র মুহাদ্দিস হিসেবে যোগদান করে দীর্ঘ ১৪ বছর খেদমত করেন। পাশাপাশি মসজিদে ইমাম ও খতীবের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭৬ সনে জামিয়া ওবাইদিয়া নানুপুর মাদরাসায়,১৯৭৭ সনে ঢাকা আলিয়া মাদরাসায় এবং ১৯৭৯ সনে জামিয়া কুরআনিয়া লালবাগ মাদরাসায় সিনিয়র মুহাদ্দিস হিসেবে হাদীসের খেদমত করেছেন।

লালবাগে দীর্ঘ ২৫ বছর থাকার পর ২০০৪ সনে দারুল উলুম হাটহাজারী মাদরাসায় সিনিয়র মুহাদ্দিস পদে যোগদান করেন। দীর্ঘ ১৪ বছর হাদীছের খেদমত করে ৭৫ বছর বয়সে তিনি ইন্তেকাল করেন। ইন্তেকালের সময় তিনি ৪ ছেলে, ৩ মেয়ে ও হাজার হাজার ছাত্র রেখে যান। আল্লাহ তাকে জান্নাতের উচ্চ মাকামে স্থান দিন।