বাথরুম থেকে নবজাতকের খণ্ডিত মাথা উদ্ধার

133448_1রাজধানীর মিরপুর থানাধীন মধ্য মনিপুর খলিল মিয়ার বস্তির গণবাথরুম থেকে এক নবজাতকের খণ্ডিত মস্তক উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে ওই বস্তির গণবাথরুম থেকে মস্তকটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় নবজাতকের মা সোনিয়াকে (২০) আটক করেছে পুলিশ।

মিরপুর মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল হালিম জানান, মস্তকটি ধারালো অস্ত্র দিয়ে কেটে দেহ থেকে আলাদা করা হয়েছে বলে মনে হচ্ছে।

আটক নবজাতকের মা সোনিয়া পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, তার সঙ্গে জামাল নামে এক ছেলের অনৈতিক সম্পর্ক আছে। জামালের সঙ্গে দৈহিক সম্পর্কের ফলে তিনি অন্তঃস্বত্তা হন। সোমবার রাতে কৃমির ওষুধ খাওয়ার পর তার প্রসব ব্যথা ওঠে। সকালে বাথরুমে গেলে শুধু মস্তক প্রসব করেন তিনি।

এসআই আব্দুল হালিম আরো জানান, প্রায় ২ ঘণ্টা ধরে ওই বাথরুমের সেফটিক ট্যাংকে তল্লাশি চালানো হয়েছে। নবজাতকের শরীরের অবশিষ্ট অংশ পাওয়া যায়নি। নবজাতকের মা সোনিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। উদ্ধার করা মস্তক ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।