জামায়াত কি সিটি নির্বাচনে দলীয় মেয়রপ্রার্থী দেবে?

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | মারজান হুসাইন চৌধুরী


ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে জোটের অন্যতম প্রধান শরিক জামায়াতে ইসলামীর সাথে এখন পর্যন্ত পরিপূর্ণ ‘সমঝোতা’ করতে পারেনি বিএনপি। তাই এখন পর্যন্ত মেয়রপ্রার্থী নিয়ে মাঠে আছে জামায়াত।

দলের ঢাকা মহানগর উত্তরের আমির মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিনকে মেয়রপ্রার্থী হিসেবে অনানুষ্ঠানিক ঘোষণা করেছে জামায়াত।

এদিকে বিএনপিও এখনো নিজেদের প্রার্থীর নাম আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করেনি। ফলে  এ নিয়ে দুই দলেরই সাধারণ কর্মীদের মধ্যে একরকম ধোঁয়াশা রয়ে যাচ্ছে।

সূত্রমতে, ৯ জানুয়ারি সোমবার রাতে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে ২০ দলীয় জোটের শীর্ষনেতারা মেয়রপ্রার্থী চূড়ান্তকরণে খালেদা জিয়াকে দায়িত্ব দেন। জোটের সঙ্গে আলোচনা না করে জামায়াত মেয়রপ্রার্থী ঘোষণা দেওয়ায় বৈঠকে বেশিরভাগ নেতা ক্ষোভ প্রকাশ করেন। জবাবে বৈঠকে অংশ নেওয়া জামায়াত প্রতিনিধি বলেন, বিএনপি-জামায়াতের মহাসচিব পর্যায়ের বৈঠক হলে কোনো সমস্যা হবে না। ২০ দলীয় জোটের শীর্ষনেতা খালেদা জিয়া যে সিদ্ধান্ত নেবেন, জামায়াত তা মেনে নেবে। কিন্তু জোট নেতারা বিএনপি থেকে একজন মেয়রপ্রার্থী করতে খালেদা জিয়ার ওপর দায়িত্ব ছেড়ে দেন।

বৃহস্পতিবার জামায়াতে ইসলামীর মনোনীত প্রার্থী মহানগর উত্তরের আমির মুহাম্মদ সেলিমউদ্দিন গণমাধ্যমকে বলেন, উত্তরের মেয়র পদে নির্বাচনের জন্য আমার দল আমাকে মনোনয়ন দিয়েছে। উত্তরা, বনানী, গুলশান, মোহাম্মদপুর, আদাবর, বাড্ডাসহ প্রভৃতি স্থানে আমি ইতোমধ্যে গণসংযোগ শুরু করেছি। ঘরোয়া বৈঠক করছি। আমাদের নেতাকর্মীরা কাজ করছেন। রবিবার মেয়র পদের জন্য রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় থেকে ফরমও ক্রয় করব। উত্তর সিটির ভোটাররা মনে করেন, যোগ্যতম প্রার্থী হিসেবে জোটনেত্রী আমাকেই চূড়ান্ত মনোনয়ন দেবেন।

জোটের একক প্রার্থী হিসেবে বিএনপির মনোনয়ন না পেলে শেষ পর্যন্ত প্রার্থী থাকবেন কিনা প্রশ্ন করা হলে সেলিম উদ্দিন বলেন, এ ক্ষেত্রে দলীয় সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত।