সীতাকুণ্ডে পুলিশকে গণপিটুনী

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | ডেস্ক রিপোর্ট


মামলা ছাড়া দুই ব্যক্তিকে তুলে আনতে গিয়ে গণধোলায়ের শিকার হয়েছেন সীতাকুণ্ড থানার কয়েকজন পুলিশ সদস্য। গণধোলাইয়ের শিকার হওয়াদের মধ্যে রয়েছেন এসআই টিকলো মজুমদার, এসআই বেলায়েত এবং এএসআই এমদাদ।

শুক্রবার সন্ধায় সীতাকুণ্ডের ৯ নং ভাটিয়ারী ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের মির্জানগর এলাকার জেলে পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়দের ও প্রত্যক্ষদর্শীদের সাথে কথা বলে আমাদের সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি জানান, মির্জানগর জেলেপাড়া এলাকায় কয়েকজন জেলে পূজা নিয়ে আলোচনা করছিলেন। এসময় সিএনজি ট্রেক্সি নিয়ে কয়েকজন পুলিশ সদস্য বাদল সর্দারসহ আরো দুই জেলেকে গাড়িতে তুলে নেয়। কোন অভিযোগ ছাড়াই বাদল সর্দারকে আটকের কারণ জানতে চাওয়া হয়। এসময় জেলেদের সাথে তিন পুলিশ সদস্য তর্ক বির্তকে জড়িয়ে পড়লে জেলে পাড়ার শত শত লোকজন জড়ো তাদের উপর হামলা চালায়। এক পর্যায়ে পুলিশের একজন এসআই (ওয়ার্লেস হাতে) সিএনজি ঘিরে থাকা উত্তেজিত জনতাকে শান্ত করার চেষ্টা করে। এসময় পুলিশ সদস্যরা রাইফেল রেখেই পালিয়ে যায়। পরে ক্ষুদ্ধদের কাছে ক্ষমা চেয়ে রাইফেল ফেরত নেয় পুলিশ সদস্যরা।

এ ব্যাপারে জেলে পাড়ার সর্দার বাদল বলেন, আমরা মাঠে বসে পুজার বিষয়ে আলাপ করছিলাম। এসময় একটি সিএনজি করে সাদা পোশাকে কয়েকজন আমাকেসহ দুইজনকে গাড়িতে তুলে নিলে এর প্রতিবাদ করে সবাই।

ওই এলাকার ইউপি সদস্য মাঈনউদ্দিন বলেন, আমি শুনেছি সিভিল পোশাকে এসে পুলিশ কয়েকজন জেলেকে আটক করলে সবাই মিলে পুলিশের উপর হামলা করে গণপিটুনী দেয়। পুলিশকে কিল ঘুষি মেরে আহত করে। পরে ঐ পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থ ত্যাগ করে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সীতাকুণ্ড মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইফতেখার হাসান বিষয়টি অস্বিকার করে বলেন, আমি এ ব্যাপারে কিছুই জানিনা। আমার থানা থেকে কেউ গিয়ে থাকলে তা আমি জানতাম।


বিডি-প্রতিদিন