ইমরান খানের সাথে ছবি; জবাব দিলেন পিনাকী ভট্টাচার্য

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | এম  মাহিরজান


গত কয়েকদিন যাবত পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার ইমরান খানের সাথে আলোচিত মুক্তিযুদ্ধ গবেষক পিনাকী ভট্টাচার্যের একটি ছবি নিয়ে বেশ আলোচনা হচ্ছে। অনেকে এটাকে দেখিয়ে অভিযোগ করছেন যে পিনাকী ভট্টাচার্য একজন পাকিস্তানপন্থী।

এবিষয়ে ইনসাফের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হলে পিনাকী ভট্টাচার্য জানান, ছবি নকল নয়। এটা তারই ছবি। তিনি জানান,  ১৯৯৮ সালে ইমরান খানের মায়ের নামে তৈরি লাহোরের শওকত খানম মেমোরিয়াল ক্যান্সার হাসপাতালে মেডিক্যাল অনকোলজির উপরে একটি ফেলোশিপ ট্রেনিং  নিতে গিয়েছিলেন তিনি।

তিনি জানান, সেইসময়ে বাংলাদেশে মেডিকেল অনকোলজি সাবজেক্টটা ছিলনা। তখনকার সময় এই ছবিটা তোলা হয়।

‘মুক্তিযুদ্ধের বয়ানে ইসলাম’ বইয়ের লেখক বলেন, এটা আমার দাপ্তরিক কাজের অংশ ছিল। আমি নিজে ফেলোশিপের জন্য তার হাসপাতাল নির্বাচন করিনি। তখন আমি যে প্রতিষ্ঠানে ছিলাম, এটা তারা পছন্দ করে দিয়েছিলেন।

তিনি বলেন, একজন পাকিস্তানির সাথে ছবি তুললেই যদি কেউ পাকিস্তানপন্থী হয়ে যায় তাহলে বাংলাদেশের কোন কবি সাহিত্যক রাজনীতিবিদ খেলোয়ারের সাথে কি পাকিস্তানির ছবি নাই! এসব অযৌক্তিক কথা যারা বলেন, তারা জিঘাংসার কারনে যুক্তি হারিয়ে উন্মাদ হয়ে গেছেন।

পিনাকী বলেন,  ইমরান খান একজন খেলোয়ার ও সমাজসেবক, তার তৃতীয় পরিচয় সে একজন নতুন প্রজন্মের রাজনীতিবিদ। সে আমার পছন্দের মানুষ। তার সাথে পরিচয় ও সামান্য চেনা পরিচয় ও বন্ধুত্ব ছিল জন্য আমি গর্বিত।

পিনাকী আরো জানান, পাকিস্তানের জনগনের সাথে তার কোন শত্রুতা নেই; শত্রুতা আছে সেই সময়ের শাসকের সাথে।

পিনাকী বলেন, শুধু ইমরান খান নয়, আরো অনেক পাকিস্তানি বন্ধু আছে আমার। তারা সকলেই খুব চমৎকার ও হৃদয়বান মানুষ। শাসকের বর্বরতার জন্য জনগনকে দায়ী করে জাতিগত ঘৃণা ছড়ানো এক ধরনের ছোটলোকি রেইসিজম। আমি রেইসিস্ট নই।