আমরা মুসলিমদেরও ভালোবাসি : মমতা

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |  ডেস্ক রিপোর্ট


ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ‘সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় কেউ যাবেন না। বিজেপি’র কথায় কেউ ঘর ভাঙবেন না।’

তিনি আজ (মঙ্গলবার) পশ্চিমবঙ্গের নদিয়া জেলার কৃষ্ণনগরে এক সমাবেশে ভাষণ দেয়ার সময় ওই মন্তব্য করেন।

বিজেপিকে টার্গেট করে মমতা বলেন, ‘ওদের মত সর্বনাশা কথাবার্তা বলা ও দাঙ্গা করার দল কম আছে। আমরা হিন্দু ধর্মের লোক, আমরা মুসলিমদেরও ভালোবাসি, আমরা হিন্দুকেও ভালোবাসি, আমরা শিখকেও ভালোবাসি, আমরা খ্রিস্টানকেও ভালোবাসি। একতাই সম্প্রীতি একথা আমরা রামকৃষ্ণদেবের কাছ থেকে শিখেছি, স্বামী বিবেকানন্দের কাছ থেকে শিখেছি। আর বিজেপি একটা রাজনৈতিক দল, ১৯৮৪ সালে যার জন্ম। তারা নাকি আমাদের জ্ঞান দেবেন!’

তিনি বলেন, ‘হিন্দু ধর্ম কবে আবিষ্কার হয়েছে? হাজার হাজার বছর ধরে বেদ-বেদান্ত বাইবেল, ত্রিপিটক। আজকে নতুন করে ওরা আমদের হিন্দু ধর্ম শেখাচ্ছে! ওরা হিন্দু ধর্মকে অপমান করে। ওরা হিন্দু ধর্মের দেবদেবীদের মানে না। ওরা হিন্দু ধর্মের দেবদেবীদের রাস্তায় ফেলে দিয়ে তা নিয়ে রাজনীতি করে! হিন্দু-মুসলিম করে। হিন্দু ধর্ম অনেক বড়ো। হিন্দু মুসলিমকে আপন করে নেয়। মুসলিম হিন্দুকে আপন করে নেয়। শিখ খৃস্টানকে আপন করে নেয়, খ্রিস্টান শিখকে আপন করে নেয়।’

মমতা বিজেপি সম্পর্কে সবাইকে সতর্ক করে দিয়ে বলেন, ‘ওরা তো ঝগড়া বাধিয়ে দিয়ে চলে যাবে। মানুষ মারা গেলে কী ওদের যায় আসে? লোকের ওপর অত্যাচার, ঘর পুড়লে ওদের কী যায় আসে? ওরা ঘরে আগুন জ্বালিয়ে দিয়ে পালিয়ে যাবে। লোকের ঘরে আগুন লাগলে ওদের কী যায় আসে? আমাদের যায় আসে। একটা মানুষ মারা গেলে, সে যেই মারা যাক সে তো মানুষ।’

মমতা আজ ব্যাংক পরিসেবা থেকে শুরু করে মেয়েদের উন্নয়নে কেন্দ্রীয় সরকার যেসব পদক্ষেপ নিয়েছে সেসবের তীব্র সমালোচনা করেন। তিনি জিএসটি (পণ্য ও পরিসেবা কর), নোট বাতিল, ব্যবসায়ীদের দুর্ভোগ, কৃষকের আত্মহত্যা, গরীব মানুষের সমস্যা ইত্যাদি প্রসঙ্গের উল্লেখ করে কেন্দ্রীয় সরকারের ব্যাপক তুলোধোনা করেন।


পার্সটুডে