ফিলিস্তিনি জেলেকে যেভাবে নৃশংসভাবে হত্যা করল ইসরাইলি সেনারা

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | ডেস্ক রিপোর্ট


সমুদ্রে মাছ ধরতে যাচ্ছেন ফিলিস্তিনি জেলেরা (ফাইল ছবি)

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার উপকূলে ইহুদিবাদী ইসরাইলি সেনারা গুলি করে একজন ফিলিস্তিনি জেলেকে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো দুই ফিলিস্তিনি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ফিলিস্তিনি সূত্রগুলো জানিয়েছে, গাজা সীমান্ত থেকে ১৩ কিলোমিটার উত্তরে আশকেলন শহরের কাছে সমুদ্রে মাছ ধরার সময় ফিলিস্তিনি নৌকায় গুলি চালায় ইসরাইলি নৌবাহিনীর সেনারা। এতে নৌকায় থাকা তিন ফিলিস্তিনি জেলে আহত হন।

পরে আহতদের একজন মারা যান। বাকি দুই ফিলিস্তিনি জেলেকে আহত অবস্থায় ইহুদিবাদী সেনারা ধরে নিয়ে গেছে।

অবরুদ্ধে গাজা উপত্যকার ১৫ লাখ অধিবাসীর মধ্যে প্রায় ৪,০০০ মানুষ মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করেন। এদের মধ্যে অন্তত ২,০০০ জেলে দারিদ্রসীমার নীচে জীবনযাপন করছেন।

২০১৪ সালের আগস্ট মাস পর্যন্ত গাজা উপকুল থেকে তিন নটিক্যাল মাইলের বেশি দূরে মাছ ধরতে যেতে পারতেন না ফিলিস্তিনি জেলেরা। ওই মাসে ৫০ দিনের যুদ্ধ শেষে ইসরাইল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে স্বাক্ষরিত যুদ্ধবিরতি চুক্তিতে ফিলিস্তিনি জেলেদেরকে ছয় নটিক্যাল মাইল পর্যন্ত মাছ ধরতে যাওয়ার অনুমতি দেয় তেল আবিব।

অথচ অসলো শান্তি চুক্তিতে এই সীমানা ২০ নটিক্যাল মাইল পর্যন্ত দেয়ার কথা বলা হয়েছে। কিন্তু ২০০৭ সাল থেকে গাজা উপত্যকার ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার কারণে ফিলিস্তিনি জেলেরা সে অধিকার ভোগ করতে পারছেন না।

বিগত বছরগুলোতে ইহুদিবাদী সেনারা একশ’রও বেশি বার ফিলিস্তিনি মাছ ধরার নৌকায় হানা দিয়ে বহু জেলেকে তাদের নৌকাসহ ধরে নিয়ে গেছে।


পার্সটুডে