বাংলা স্টার ২১১, আবার বলছি, ঘুরে যাও, ঘুরে যাও…. আগুন!

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


নেপালে বাংলাদেশি বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ২৬ বাংলাদেশিসহ ৫০ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়ে হাসপাতালে রয়েছেন ৯ বাংলাদেশিসহ ২২ জন। হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। সোমবার দুপুর ১২টা ৫১মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে কাঠমান্ডুর উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া ইউএস বাংলার এয়ারলাইন্সের একটি বিমান কাঠমান্ডু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত হয়।

বলা হচ্ছে, ইউএস বাংলার পাইলটকে বিভ্রান্ত করেছিল কাঠমান্ডু এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল (এটিসি)। অথবা এটিসির নির্দেশ অগ্রাহ্য করেছিলেন পাইলট। ইতিমধ্যে কাঠমান্ডু এটিসি অফিসার এবং পাইলটের কথোপকথনের যে অডিও টেপ এসেছে, পাঠকদের জন্য তা তুলে দেওয়া হল —

এটিসি: আবার বলছি, রানওয়ে ২০-তে নামা যাবে না। এখন যেখানে আছেন, সেখানে অপেক্ষা করুন

পাইলট: ডান দিকে চক্কর কেটে আসছি। তার পর রানওয়ে ০২-তে নামার জন্য অপেক্ষা করব

এটিসি: সেটাই ভাল। কিন্তু, এখন নামার চেষ্টা করবেন না। ওই রানওয়েতে অন্য বিমান নামছে

পাইলট: (কিছু বলেন, প্রচণ্ড আওয়াজে বোঝা যায়নি)

এটিসি: আপনার আগে অন্য বিমান আছে। তাই ১৫ নটিক্যাল মাইল (২৭ কিলোমিটার) দূরে অপেক্ষা করুন। (অন্য একটি বিমানকে) আকাশে যেখানে আছেন, সেখানে কি হোল্ড করতে পারবেন?

(এটিসি-তে দুই অফিসারের নেপালিতে উত্তেজিত কথোপকথন)

এটিসি: বাংলা স্টার ২১১ (ইউএস বাংলা বিমানের অন্য নাম) রানওয়ে পরিষ্কার। রানওয়ে ২০ বা রানওয়ে ০২— যে দিকে খুশি নামুন

পাইলট: রানওয়ে ২০-তে ল্যান্ড করতে চাই

এটিসি: রানওয়ে ২০-তে ল্যান্ড করতে পারেন। বাতাস ২৭০ ডিগ্রি (পশ্চিম দিক থেকে বইছে) এবং বাতাসের গতি ৬ নটস (ঘণ্টায় ১০.৮ কিলোমিটার)

পাইলট: ককপিট (বিমান) ল্যান্ড করতে প্রস্তুত (কয়েক সেকেন্ড প্রচণ্ড আওয়াজ)

এটিসি: বাংলা স্টার ২১১, রানওয়ে পরিষ্কার দেখতে পাচ্ছেন কি না, জানান

পাইলট: পাচ্ছি না

এটিসি: ডান দিকে ঘুরে যান। তা হলে রানওয়ে দেখতে পাবেন।… এখনও রানওয়ে দেখতে পাচ্ছেন না

পাইলট: এ বার পেয়েছি। আমাকে নামার অনুমতি দেওয়া হোক

(মুখ ঘুরিয়ে এ বার সম্ভবত রানওয়ের অন্য দিকে চলে আসেন পাইলট)

এটিসি: বাংলা স্টার ২১১, রানওয়ে পরিষ্কার, নেমে আসতে পারেন

পাইলট: রানওয়ে ০২-তে নামার জন্য প্রস্তুত

এটিসি: রজার (ঠিক আছে), রানওয়ে ০২-তে নেমে আসুন। রানওয়ে পরিষ্কার

(আবার প্রবল আওয়াজ)

এটিসি: আর্মি ৫৩ (নেপাল সেনাবাহিনীর কোনও বিমান), আগে বিমান রয়েছে। বাংলা স্টার ২১১, রানওয়ে ২০-র কাছাকাছি নেমে এসেছে। আপনি কি এখনকার অবস্থানে থাকতে পারবেন?

সেনা পাইলট: পারব

এটিসি: (ওই একই নির্দেশ আরও একটি বিমানকে) আর্মি ৫৩ বিমান ১০ মাইল (১৮ কিলোমিটার) দূরে অপেক্ষা করছে। আপনিও করুন সেই

পাইলট: ঠিক আছে

(এর পরে ভয়ঙ্কর শব্দ)

এটিসি: (উত্তেজিত ভাবে) বাংলা স্টার ২১১, আবার বলছি, ঘুরে যাও, ঘুরে যাও….

(ভয়ঙ্কর শব্দ)

এটিসি: আগুন….

(চিৎকার ভেসে আসে ‘কাঠমান্ডু টাওয়ার’, ‘কাঠমান্ডু টাওয়ার’)

(কিছু পরে)

এক পাইলট: রানওয়ে কি বন্ধ?

এসিটি: হ্যাঁ। ইউএস বাংলা-র বিমান ভেঙে পড়েছে।