নেত্রকোনায় খেলাফতের কেন্দ্রীয় নেতাকে প্রকাশ্যে হত্যার হুমকি বিএনপি নেতার

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | ডেস্ক রিপোর্ট


গাজী মোঃ আব্দুর রহিম

বাংলাদেশ খেলাফত যুব আন্দোলন কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি ও নেত্রকোনা জেলা আমীর এবং ‘পাক্ষিক সবারখবর’ পত্রিকার নেত্রকোনা প্রতিনিধি গাজী মোঃ আব্দুর রহিমকে জেলা শহরের বড় বাজারস্থ নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ‘হাফেজ্জী হুজুর সেন্টারে’ এসে শুক্রবার ২৯ মার্চ রাত ১১ টায় প্রকাশ্যে হত্যার হুমকি দেয় স্থানীয় বিএনপি নেতা ফরিদ ঢালী ও আসলাম ভান্ডারী।

আজ শনিবার গাজী আব্দুর রহিম স্থানীয় ইলেকট্রনিক্স ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকদের বলেন, দীর্ঘদিন যাবত বিএনপি নেতা ফরিদ ঢালী ও আসলাম ভান্ডারী প্রতিদিন শহরের বড়বাজারে গভীর রাতে মদপান করে এলাকার নিরীহ পথচারীদের উপর চড়াও হয়। আসা যাওয়ার পথে মানুষের সাথে দুর্ব্যবহার করে। বিগত ৫ মাস আগে উপরোক্ত ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আমি সামাজিক ও ঈমানী দায়িত্ব হিসেবে তাদেরকে মৌখিকভাবে প্রতিবাদ করি ঐদিনই তারা উত্তেজিত হয়ে আমাকে গালি গালাজ করে এবং আমার উপর চড়াও হয়। এক পর্যায়ে আমার মাথায় লোহার পাইপ দিয়ে আঘাত করে এবং উপর্যুপুরি কিল ঘুষি মেরে জখম করে। আমি তাদের নির্যাতনে তখন নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালেও ভর্তি ছিলাম এবং এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ করেছিলাম। পরে স্থানীয় মাতাব্বরগণের হস্তক্ষেপে তা মীমাংসা হয়ে যায়।

কিন্তু মাদকসেবী ফরিদ ঢালী ও আসলাম ভান্ডারী আবারও প্রতিদিনের ন্যায় গত শুক্রবার রাতে মদ্যপ অবস্থায় আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এসে চাঁদা দাবী করে এবং তারা অশ্লীল ভাষায় গালি গালাজ করে। তারা বলে রাত ৮টার পরে যেন আমি শহর ছেড়ে চলে যাই। চাঁদা না দিলে আমাকে প্রকাশ্যে খুন করবে বলে হুমকি দেয় ফরিদ ঢালী ও আসলাম ভান্ডারী।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নেত্রকোনা মডেল থানায় ফরিদ ঢালী ও আসলাম ভান্ডারীর নামে গাজী আব্দুর রহিম একটি অভিযোগ দায়ের করেন বলে সাংবাদিকদের কাছে দাবী করেন।