‘৯০ সালের মত জনবিস্ফোরণ ঘটবে, এই ভয়ে খালেদা জিয়াকে আটকে রেখেছে সরকার’

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, “আওয়ামী লীগ কোনো বিরোধী মতকে সহ্য করতে পারে না। আর সেজন্যই তারা গণতন্ত্রের মাতা খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে। তারা জানে খালেদা জিয়া রাজপথে নেমে আসলে আবার সেই ১৯৯০ সালের মত জনবিস্ফোরণ ঘটবে। তাই তাকে আটকে রেখেছে।”

আজ শনিবার সন্ধ্যায় ইঞ্জিনিয়ার ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে স্বাধীনতা দিবসের আলোচনা সভায় ফখরুল এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, “বর্তমানে আমাদের সামনে একটাই লক্ষ্য। সেটি হচ্ছে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা। এর বাইরে আর কোনো বিকল্প চিন্তার সুযোগ নেই। আগে খালেদা জিয়ার মুক্তি বাকি সব পরে।”

মির্জা ফখরুল বলেন, “আওয়ামী লীগ আজ গণতন্ত্রের মাতা খালেদা জিয়াকে আটকে রেখেছে। আজ আসুন সবাই ফেটে পড়ুন, রাজপথে নেমে আসুন। এখন আর বসে থাকার সময় নেই একটাই লক্ষ্য- খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা। এ ব্যতীত অন্যকিছু নয়। আমাদের একটাই পথ- আন্দোলন, আন্দোলন, আন্দোলন। কারণ আন্দোলনের বিকল্প কোনো পথ নেই। এখন আমাদের ঘরে বসে থাকার সময় নেই। আমাদের অধিকার, নিরাপত্তা ও নাগরিক অধিকারের জন্য ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন করতে হবে।”

বিএনপি মহাসচিব বলেন, “প্রধানমন্ত্রী নিজে যেমন তিনি সবাইকে তেমন মনে করে। তাই তার কথার উত্তর দেওয়া আমাদের রাজনৈতিক শিষ্টাচারে নেই। তাই আমি তাঁর কথার জবাব দিতে রাজি না।”

তিনি বলেন, “আজ আমরা এমন একটি সময় স্বাধীনতা দিবস পালন করছি, যখন আমাদের সব স্বপ্ন ও অধিকারগুলোকে ভেঙে চুরমার করা হয়েছে। যে চেতনার জন্য আমরা স্বাধীনতা যুদ্ধ করেছিলম তা আজ ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে। কে ধ্বংস করেছে- যারা আজ ক্ষমতা দখল করে রেখেছে জোর করে। কারণ তাদের চরিত্রই এটা, এটা তাদের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য।”

তিনি আরও বলেন, “বর্তমান অবৈধ সরকারের যত বড় মেগা প্রজেক্ট তত বড় মেগা চুরি। কারণ তারা এক একটা মেগা প্রজেক্ট চালু করে দেশের সম্পদ চুরি করছে। দেশের প্রতিটি প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করে দিয়েছে।”